ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ৯ মাস ধর্ষণ, চেয়ারম্যান গ্রেফতার


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১১:৩৮

আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গাইবান্ধায় ন্যাশনাল সার্ভিসের এক কর্মীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করেছে।

লক্ষ্মীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাদলের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী ওই নারীর অভিযোগের পর মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ ও নির্যাতিতা গৃহবধূর অভিযোগ, চলতি বছরের ১৩ মার্চ ন্যাশনাল সার্ভিসের প্রত্যয়ন আনতে গেলে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তার কক্ষে ডেকে নিয়ে একই ইউনিয়নের বাসিন্দা ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের পর ভিডিওচিত্র ধারণ করেন পরিষদের চেয়ারম্যান বাদল। পরবর্তীতে ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে আরো একাধিকবার বিভিন্ন জায়গায় তাকে ধর্ষণ করেন।

সবশেষ গত ১১ নভেম্বর নির্যাতিতার বাড়িতে তার স্বামীর অনুপস্থিতে গিয়ে আবারো ধর্ষণের সময় আশপাশের লোকজন টের পেলে চেয়ারম্যান বাদল পালিয়ে যান। পরবর্তীতে নির্যাতিতা নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেন।

এরআগে ২০১৭ সালে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান ও একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান বাদল।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি তদন্ত মজিবর রহমান বলেন, বুধবার ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে বাকি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads