কক্সবাজারে মাস্ক না পরায় ৪২ পর্যটককে জরিমানা

- ছবি: সংগৃহীত

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২২ নভেম্বর ২০২০, ১৭:৩৪

কক্সবাজারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে মাস্ক ব্যবহার না করার অভিযোগে ৪২ জন পর্যটক ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযুক্তদের কাছ থেকে ৬ হাজার ২০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

রোববার (২২ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে জেলা প্রশাসন এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আল-আমিন পারভেজ।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পারভেজ বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রশাসন সাধারণ মানুষের পাশাপাশি কক্সবাজারে আগত পর্যটকদেরও মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করে আদেশ দিয়েছে। কিন্তু অনেকে তা মানছেন না। তাই মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক ও সচেতনতা সৃষ্টিতে জেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালিয়েছে।

তিনি বলেন, রোববার সকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের লাবণী, সুগন্ধা ও কলাতলীসহ বিভিন্ন পয়েন্টে অভিযান পরিচালনা করে। এছাড়া সৈকতের বার্মিজ মার্কেট, বালিয়াড়ি ও সাগর তীরেও এ অভিযান চালানো হয়। এসময় পর্যটক ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের মধ্যে ৪২ জনকে মাস্ক পরিধান না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বিভিন্ন অংকে ৬ হাজার ২০ টাকা জরিমানা করা হয়।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বলেন, করোনার কোন ভ্যাকসিন আবিস্কার হওয়ার আগে মাস্কই হচ্ছে বড় প্রোটেকশন। তাই সাধারণ মানুষের পাশাপাশি কক্সবাজারে যেসব পর্যটক আসছেন তারা যেন সবসময় মাস্ক পরিধান করেন, সেটা নিশ্চিত করতে প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালাচ্ছে।

প্রশাসনের নির্দেশনা অমান্যকারিদের শুধু জরিমান আদায় করে শাস্তি প্রদান করা নয়, মূলত করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মুখ্য উদ্দেশ্য বলে মন্তব্য করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক।

এদিকে সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের সময় যেসব পর্যটক ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা মুখে মাস্ক পরিধান করেননি তাৎক্ষণিক তাদের মাস্ক কেনার হিড়িক পড়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখা মিলে।

মানবকণ্ঠ/এসকে






ads