যাত্রী সংকটে ভরতগামী ফ্লাইট


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৯:১৮

দীর্ঘ ৭ মাস পর ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমান যোগাযোগ শুরু হয়েছে। গত বুধবার শুরু দিন থেকেই ভারতগামী যাত্রীর সংখ্যা কম। সংকট কাটবে কিনা তা আরও কয়েকদিন পর বোঝা যাবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ছোট আকৃতির প্লেন পাঠিয়েও ফ্লাইটগুলোর বেশির ভাগ আসনই ফাঁকা থাকছে। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, গত বুধবার দেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার এয়ারলাইন্সের ভারতগামী দুটি ফ্লাইট ছিলো। ঢাকা-কলকাতা ফ্লাইটে যাত্রী ছিলো ২৩ জন এবং ঢাকা-চেন্নাই ফ্লাইটের যাত্রী ছিলো ৩২ জন। দুই রুটেই ৭৪ আসনের ড্যাশ-৮ পাঠানো হয়েছিল।

একদিন পর বৃহস্পতিবার থেকে চালু হয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের এয়ার বাবল ফ্লাইট। বিশেষ ব্যবস্থার এই ফ্লাইট বিকেল তিনটার দিকে ঢাকা থেকে দিল্লির উদ্দেশে রওনা দেয়। তবে দিল্লি রুটেও ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজ পাঠায় বিমান। তাতেও যাত্রী পূর্ণ হয়নি। আসা-যাওয়া মিলিয়ে ৭০ জন যাত্রী চড়েছেন বিমানে।

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোকাব্বির হোসেন বলেন, ঢাকা-দিল্লি ফ্লাইটে যাত্রী ছিল ৪২ জন। দিল্লি থেকে ফিরবেন ২৮ জন যাত্রী। এখনই বলা যাচ্ছে যাত্রী কেমন হবে। তবে পর্যটন খোলার আগে যাত্রী নাও বাড়তে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

এছাড়া ঢাকা-চট্টগ্রাম-চেন্নাই রুটে ইউএস বাংলার আরও একটি ফ্লাইট ছিলো। এই ফ্লাইটেও যাত্রী সংখ্যাও কম ছিলো বলে বিমানবন্দর সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।






ads