মোটরসাইকেল না পেয়ে মা’কে পুড়িয়ে মারলো ছেলে


poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১৭ অক্টোবর ২০২০, ২০:৩৪

শেরপুর জেলার শ্রীবরদীতে মায়রে শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ছেলে আবু হানিফ (১৭) কে গ্রফেতার করে আদলতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। দুর্ভাগা ওই মায়রে নাম হুনুফা বেগম। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

আজ শনিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেলে পৌর শহরের তাঁতিহাটি পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে ওই পাষণ্ড ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে এ ঘটনায় হুনুফা বেগমের বড় ভাই দুলাল মিয়া বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়, উপজেলার তাঁতিহাটি পশ্চিমপাড়া এলাকার ইজারাদার সদাগড় আলী সদার ১ ছেলে ও ২ মেয়ে। এদের মধ্যে ছেলে আবু হানিফ সবার বড়। কিছুদিন যাবত মায়ের কাছে মোটরসাইকেল কিনে দেয়ার বায়না ধরে আসছিল হানিফ। মা হুনুফা বেগম এতে রাজি না হওয়ায় গত রোববার রাতে তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ছেলে। এতে মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হয় হুনুফা বেগম। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে শেরপুর ও ময়মনসিংহ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানেও তার অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে। অবশেষে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হুনুফার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় নিহত হুনুফা বেগমের বড় ভাই শেরপুর শহরের চকপাঠক এলাকার বাসিন্দা দুলাল মিয়া বাদি হয়ে শনিবার ভাগনে আবু হানিফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

অন্যদিকে আবু হানিফকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শ্রীবরদী থানা পুলিশের ওসি রুহুল আমিন তালুকদার।

মানবকণ্ঠ/এনএস





ads







Loading...