ভোলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

- ছবি: প্রতিবেদক

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:১৯

ভোলার দৌলতখান উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজন ও চরফ্যাশনে একজন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দৌলতখানের বাংলাবাজার ও সৈয়দপুর ইউনিয়নে এই দুর্ঘটনা হয়।

দৌলতখানে দুর্ঘটনায় নিহত দুইজন হলেন- কবির হোসেন (৬৫) ও লামিয়া আক্তার (৮)। নিহত লামিয়া দৌলতখান উপজেলার উত্তর জয়নগর ইউনিয়নের আকবর হোসেনের মেয়ে এবং অপরদিকে নিহত কবির হোসেনের পরিচয় এখনো সনাক্ত করা যায়নি।

এছাড়া চরফ্যাশন সড়কের কাইমউদ্দিন মোড়ে ভোলায় আসার পথে একটি লরি বিপরীত দিক থেকে আসা ২টি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গেলে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় মোঃ দিদার হোসেন নামের একজন নিহত হন এবং আরও ৬জন গুরুতর আহত হন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকালে ভোলা-চরফ্যাশন মহাসড়কে বাংলাবাজার এলাকায় বাসের চাপায় কবির হোসেন নামে এক পথচারির মৃত্যু হয়। দৌলতখানের সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মিজিরহাট এলাকার মহাজন বাড়ীর মোড় সংলগ্ন অটোরিকশা (বোরাক) চাপায় শিশু লামিয়া ঘটনাস্থলে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে দৌলতখান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পথে রাস্তায় মারা যায়।

প্রতাক্ষদর্শীরা জানান, লামিয়া কয়েকদিন আগে তার মামার বাড়ীতে বেড়াতে আসে। সকালে সে তার মামাতো ভাই বোনদের নিয়ে রাস্তায় হাটছিল। এসময় পিছন দিক থেকে আসা অটোরিকশা (বোরাক) চাপা দিলে সে গুরুত্বর আহত হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তাদের ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়েছে এবং তারা এই বিষয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

অপরদিকে, ভোলার চরফ্যাশন সড়কের কাইমউদ্দিন মোড়ে লরি ও দুটি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত ও ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার চরফ্যাশন থেকে ভোলায় আসার পথে একটি লরি বিপরীত দিক থেকে আসা ২টি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গেলে মুখোমুখি সংঘর্ষে মোঃ দিদার হোসেন নামের একজন নিহত হয়। আহত হয় আরও ৫ যাত্রী। নিহত দিদার হোসেন আছলামপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা মোঃ বশির উল্লাহর ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, চরফ্যাশন সড়কের কাইমউদ্দিন মোড় নামক স্থানে চরফ্যাশন থেকে ভোলায় আসার পথে একটি লরি বিপরীত দিক থেকে আসা ২টি অটোরিকশাকে সাইড দিতে গেলে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় লরিটি পাশে উল্টে পড়ে যায়। এসময় গুরুতর আহত মোঃ দিদার হোসেনকে উদ্ধার করে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা হলেন, মোঃ মনির হোসেন (৪০), মোঃ রাজু (২৩), শিক্ষিকা মোসাঃ অনিকা (৪০), মোঃ জাবের হোসেন (১৮), মোঃ জুয়েল (২২)। আহতরা বর্তমানে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

ভোলা চরফ্যাশন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মনির হোসেন মিয়া জানান, লরি ও অটোরিকশার সংঘর্ষের ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া দুইজন গুরুতর আহতসহ মোট ৫ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আর নিহতদের ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদরে প্রেরণ করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে





ads