ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে ছিনতাই, ব্যাংক গ্রাহক তাদের টার্গেট

ডিবি পরিচয়ে তুলে নিয়ে ছিনতাই, ব্যাংক গ্রাহক তাদের টার্গেট
- ছবি : প্রতিবেদক

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:৫৫

পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) পরিচয় দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই-ডাকাতি করেছে এমন চারজনকে গ্রেফতার করেছে কুমিল্লা জেলা পুলিশ। গ্রেফতার চারজনের পেশা ছিলো ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে মানুষকে তুলে নিয়ে যাওয়া। এরপর ছিনতাই-ডাকাতি শেষে নির্জন স্থানে তাদেরকে ফেলে দেওয়া। তারা এক্ষেত্রে টার্গেট করতো বিভিন্ন ব্যাংক থেকে টাকা নিয়ে বের হওয়া গ্রাহক এবং ব্যবসায়ীদের। তাদের কাছ থেকে নগদ দেড় লাখ টাকা, পুলিশ লেখা কাভারসহ একটি খেলনা পিস্তল, একটি হ্যান্ডকাফ, একটি ওয়াকিটকি, ডিবি পুলিশের পোশাক ও একটি মেরুন কালারের প্রাইভেটকার উদ্ধার করেছে পুলিশ।

কুমিল্লা ডিবি পুলিশের টিমের সদস্যরা মঙ্গলবার ঢাকার সাভার এবং গাজীপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে। বুধবার কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে এসব ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদেরকে গ্রেপ্তার এবং সম্প্রতি ঘটে যাওয়া কয়েকটি ঘটনার তথ্য প্রদান করেন।

গ্রেফতার করা হয় শেরপুরের শ্রীবরদি থানার ধাতুয়া গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে সুমন মিয়া (৪৫), ভোলার তজুমুদ্দিন থানার শ্যাম্ভপুর গ্রামের শাহজাহানের ছেলে মো.ইউসুফ (৫২), জয়পুরহাটের আক্কেলপুর থানার মানিকপাড়া গ্রামের আনারুলের ছেলে মো.আপেল (৩৩) ও যশোরের কোতয়ালী থানা এলাকার জমজমপুর গ্রামের লুৎফুর রহমানের ছেলে মো.মনির হোসেন (৪৫)।

পুলিশ সুপার জানান, পেশাদার এ ছিনতাইকারী চক্রটি বেশ কিছুদিন যাবত নানা কৌশলে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় ছিনতাই এবং ডাকাতি করে আসছিল। গত ১২ আগস্ট চক্রটি ডিবি পুলিশ পরিচয়ে জেলার দেবীদ্বার থেকে আবু হানিফ শামীম নামের এক ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে তার কাছে থাকা ১২ লাখ টাকা নিয়ে মারধর করে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে ফেলে যায়। গত ২১ সেপ্টেম্বর চক্রটি একই কায়দায় জেলার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর এলাকায় এক বিকাশ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে পাঁচ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ২১ জুলাই পদুয়ার বাজার এলাকার তৈয়ব হোসেনের কাছ থেকে পাঁচ লাখ ৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ) আজিম-উল আহসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) শাহরিয়ার মোহাম্মদ মিয়াজী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) নাজমুল হাসান রাফি ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশান্ত কুমার পাল।

মানবকণ্ঠ/আরএস





ads