বাঞ্ছারামপুর যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ছয় মাস অফিস না করার অভিযোগ

বাঞ্ছারামপুর যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা ছয় মাস অফিস না করার অভিযোগ
ফাঁকা অফিস - ছবি: প্রতিবেদক

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:২৬,  আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:৪২

ফারুক আহমেদ, বাঞ্ছারামপুর : নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে গত ছয় মাসেরও বেশি সময় অফিসে অনুপস্থিত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মহিবুর রহমান খানের বিরুদ্ধে।

সরেজমিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলা পরিষদে গিয়ে বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২ টার দিকে দেখা গেছে, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তার অফিস খোলা আছে কিন্তু অফিস প্রধান নাই। নেই কোনো অফিসের হাজিরা খাতা।

যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মহিবুর রহমান খান দীর্ঘ দিন ধরে অফিসে অনুপস্থিত থাকার কারণে গুরুত্বপূর্ণ কর্মকাণ্ডে চরম বিঘ্ন ঘটছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ যে, তিনি অফিসের কাজ সারছেন অফিস সহকারীর মাধ্যমে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক অফিস সহকারী মানবকণ্ঠকে বলেন, স্যার না থাকায় প্রায়ই লজ্জার ভেতর পড়তে হয়। অফিস প্রধান না থাকলে অফিস চালাতেও সমস্যা হয়। বিভিন্ন মানুষ স্যারের খোঁজ করলে আমরা উত্তর দিতে পারি না। করোনার সময় ছয় মাসেরও বেশি তিনি অফিসে আসেননি। এখনও একদিন আসলে আবার ১০ দিন আসেন না।

এ ব্যাপারে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মহিবুর রহমানকে ফোন করলে তিনি বলেন, আমি অসুস্থ। তাই অফিস করতে পারি না।

তার অসুস্থতা সম্পর্কে ডিপার্টমেন্ট অবগত কি-না জানতে  চাইলে তিনি বলেন, আমি এখনো যোগাযোগ করতে পারি নাই।

ছয় মাসের ভেতর অফিসকে অসুস্থতার বিষয়টি অবগত না করতে পারার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপনার সাথে এ ব্যাপারে কথা বলতে আমি চাই না।

এ বিষয়ে জেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ মোতাহার হোসেন বলেন, তিনি এতদিন অফিসে নাই এ বিষয়ে আমি জানি না। বিষয়টি এখনই জানলাম। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে





ads