যমুনার পানি কমে বিপৎসীমার ৫১ সে.মি উপরে

যমুনার পানি কমে বিপৎসীমার ৫১ সে.মি উপরে
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ৩১ জুলাই ২০২০, ১৮:১৫

বগুড়ায় যমুনা নদীর পানি ১২৮ সেন্টিমিটার থেকে পর্যায়ক্রমে মোট ৭৭ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৫১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

প্রবল বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে জেলার সারিয়াকান্দি পয়েন্টে যমুনা নদীতে পানি বাড়তে থাকে।

তবে গত ২৪ ঘণ্টার হিসেব অনুযায়ী এ নদীর পানি আরও কমেছে। অন্যদিকে বাঙ্গালী নদীর পানি এক সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সহকারী প্রকৗশলী মো. হুয়ায়ুন কবির।

এদিকে যমুনা নদীতে পানি বাড়ায় সারিয়াকান্দি উপজেলার চরাঞ্চলের চালুয়াবাড়ী, কর্নিবাড়ী, কুতুবপুর, চন্দনবাইশা, কাজলা, কামালপুর, রহদহ, বোহাইল ও সারিয়াকান্দি সদরসহ সোনাতলা ও ধুনট উপজেলার মোট ১৮টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল এবং পাট, ধানসহ ফসলি জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে প্রায় দের লাখ মানুষ। পানি বাড়ায় নদী তীরবর্তী মানুষের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

বগুড়া জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) সহকারী প্রকৗশলী মো. হুয়ায়ুন কবির জানান, যমুনা নদীতে বিপৎসীমা নির্ধারণ করা হয় ১৬ দশমিক ৭০ মিটার। সন্ধ্যা ৬টার হিসেব অনুযায়ী নদীর পানি ১৭ দশমিক ২১ মিটার দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অর্থাৎ বিপৎসীমার ৫১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

তিনি জানান, বাঙ্গালী নদীতে বিপৎসীমা নির্ধারণ করা হয় ১৫ দশমিক ৮৫ মিটার। এখন এ নদীতে ১৬ দশমিক ১১ মিটার দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। অর্থাৎ এ নদীর পানি বিপৎসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রভাবিত হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, এর আগে মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) দুপুর ১২টার হিসেব অনুযায়ী যমুনা নদীর পানি ১৭ দশমিক ৩২ মিটার এবং বাঙ্গালীর পানি ১৬ দশমিক ১৩ মিটার দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিলো।

মানবকণ্ঠ/আরএস





ads






Loading...