মিরসরাইয়ে বিএসআরএম কারখানায় দগ্ধ ৬ শ্রমিক

মিরসরাইয়ে বিএসআরএম কারখানায় দগ্ধ ৬ শ্রমিক
- প্রতিবেদক

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৬ জুন ২০২০, ২১:০৫

মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জে সোনাপাহাড়ে অবস্থিত বিএসআরএম কারখানায় কাজ করার সময় গরম তরল পদার্থে দগ্ধ হয়ে ৬ শ্রমিক আহত হয়। এদের মধ্য চিকিৎসাধীন অবস্থায় একজন মারা যায়।

শনিবার ৬ জুন বিকাল সাড়ে ৩টার সময় কারখানার ভেতরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। প্রাপ্ত সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের ন্যায় শ্রমিকরা কারখানায় কাজ করার সময় উপর থেকে তাদের শরীরে কারখানার গরম তরল পদার্থ পড়ে। এতে কর্মরত ৬জন শ্রমিক দগ্ধ হয়।
আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে আবুল কাশেম (৩৫) নামে এক শ্রমিক মারা যায়।
নিহত আবুল কাশেম মিরসরাই থানাধীন ১৪ নং হাইতকান্দি ইউনিয়নের পূর্ব হাইতকান্দি গ্রামের মোস্তফা মিয়ার ছেলে।

এতে আহতরা হলেন- নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী থানাধীন পদুয়া গ্রামের মৃত মীর হোসেনের ছেলে গিয়াস উদ্দিন (৩২), জোরারগঞ্জ থানাধীন সোনাপাহাড় এলাকার মৃত বজলুর রহমানের ছেলে সেকান্দার (৫৭), ফেনী জেলার ছনুয়া বাজার এলাকার কামাল উদ্দিনের ছেলে মহি উদ্দিন (৩৫), ফেনী জেলার দাগন ভূঁইয়া থানার সেকান্দরপাড় গ্রামের নুর নবীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৪) এবং জনৈক নুর হোসেন। এদের মধ্য, গিয়াস উদ্দিন ও নজরুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর বলে জানা যায়।

এবিষয়ে জানতে বিএসআরএম সোনাপাহাড় কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন মোল্লার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। ফলে কারখানা কর্তৃপক্ষের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এবিষয়ে জোরারগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই সিরাজুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল ছুটে যাই। তখন জানতে পারি কারখানার গরম তরল পদার্থে শ্রমিকরা দগ্ধ হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়েছেন। পরে জানতে পারি আবুল কাশেম নামে এক শ্রমিক মারা গেছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও তিনি জানান।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads






Loading...