১৮টি মিষ্টি কুমড়ার ভেতর ছিল ১৯ কেজি গাঁজা

১৮টি মিষ্টি কুমড়ার ভেতর ছিল ১৯ কেজি গাঁজা
- প্রতিবেদক

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৯ মে ২০২০, ১৬:৪৮,  আপডেট: ২৯ মে ২০২০, ১৭:১৮

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা চৌরাস্তার বড় বাজার আড়ত এলাকায় গাঁজা বিক্রির সংবাদে অভিযানে ১৮টি মিষ্টি কুমড়ার ভেতর থেকে ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তকদির মিয়া ও জাহাঙ্গীর মিয়া নামের দুই জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় পলিথিনে মোড়ানো আঠারটি মিষ্টি কুমড়ার ভেতর ১৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত তকদির মিয়া (২৬) হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানার হরিসশামা গ্রামের একিন আলীর ছেলে ও জাহাঙ্গীর মিয়া (২৫) একই থানার গোপালপুর গ্রামের জামান মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব-১ পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা চৌরাস্তার বড় বাজার আড়ত এলাকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাঁজা বিক্রির খবর পান। এসময় ওই এলাকার কফিল উদ্দিন সুপার মার্কেটের মেসার্স সততা বাণিজ্যালয় সামনে মিষ্টি কুমড়া ভরা দাঁড়িয়ে থাকা পিক আপে অভিযান চালান র‌্যাব সদস্যরা। এসময় ওই পিক আপে থাকা ১৮টি মিষ্টি কুমড়ার ভেতর পলিথিনে মোড়ানো ১৯ কেজি গাঁজা বের করে আনা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়, তারা দীর্ঘদিন যাবত হবিগঞ্জ থেকে শ্রীপুরের বিভিন্ন এলাকায় চোরাই পথে গাঁজা এনে বিভিন্ন মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে সরবরাহ করতো। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মাদক ব্যবসায়ী তকদির মিয়া, পিক আপ চালক জাহাঙ্গীর মিয়াকে গ্রেপ্তার ও দুইটি মোবাইল ফোনসহ পিক আপ ভ্যান আটক করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads






Loading...