মাদারীপুরে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৫

মাদারীপুরে আ.লীগ-বিএনপির সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ ৫

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৪ মে ২০২০, ১১:০১,  আপডেট: ০৪ মে ২০২০, ১১:০৪

মাদারীপুর সদর উপজেলার পূর্ব রাস্তি এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৫জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। এছাড়াও আহত হয়েছে আরো ৫জন। রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর শহরের পুরান বাজারে উপজেলার পূর্ব রাস্তি এলাকার বাবু নামে এক লেবু ব্যবসায়ীকে রোমান নামে এক যুবক থাপ্পড় দেয়। এ ঘটনার জের ধরে বিল্লাল মোল্লা (৩৮), হেমায়েত মোল্লা, ফিরোজসহ কয়েকজন বাজার এলাকায় আসলে আ'লীগ সমর্থক রাজ্জাক সরদার, মামুন সরদারসহ কয়েক জনের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায় দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়। মুহূর্তের মধ্যে এলাকায় দ্বন্দ্ব ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে প্রকাশ্যেই গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

এ সময় গুলিবিদ্ধ হন পূর্বরাস্তি এলাকার সালাম সরদারের ছেলে রাজ্জাক সরদার (৩২), মজিবর সরদারের ছেলে মামুন সরদার (৩৫), ঘেসু বেপারীর ছেলে পলাশ বেপারী (৩৫), মজিবর সরদারের ছেলে সাদ্দাম সরদার (৩২), ফিরোজ সাহী (৪২) এছাড়াও আরো ৫ জন আহত হয়েছে। গুলিবিদ্ধ ৫ জন সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে।

গুলিবিদ্ধ রাজ্জাক সরদার বলেন, রাস্তি ইউনিয়নে ৮নং ওয়ার্ডের মতি মোল্লার ছেলে বেল্লাল মোল্লার নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন লোক বাজারে হামলা করে। প্রকাশ্যে তারা গুলি করে আমাদের আহত করেছে। বিল্লালের কাছে অবৈধ অস্র আছে সেটা সবাই জানে। বিল্লালের নেতৃত্বে যারা এসেছে সবাই বিএনপির লোক। বিএনপির লোকজন এই তাণ্ডব চালিয়েছে।

অভিযুক্ত বিল্লাল মোল্লা বলেন, আমি ঝামেলা শুনে বাজারে গেলে ওরা আগে হামলা করে।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত ডাক্তার মফিজুল ইসলাম লেলিন বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ ৫ জন সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে বলেন, যারা আহত হয়েছে তাদের মধ্যে কয়েকজন আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের সমর্থক আছে তবে যারা হামলা করেছে তারাতো সবাই বিএনপির লোক।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি কামরুল মিয়া বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। তবে এ ঘটনায় এখনো কেউ মামলা করেনি।

মানবকণ্ঠ/আরবি




Loading...
ads






Loading...