ফোনকল পেয়ে ১০ দিনের খাবার পৌঁছে দিলেন এএসপি

ফোনকল পেয়ে ১০ দিনের খাবার পৌঁছে দিলেন এএসপি
ফোনকল পেয়ে ১০ দিনের খাবার পৌঁছে দিলেন এএসপি

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১৪ এপ্রিল ২০২০, ১২:৪৬

ঝালকাঠি জেলা জুড়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং বিনাপ্রয়োজনে ঘরের বাইরে ঘোরাফেরা বন্ধ করতে পুলিশসহ যৌথবাহিনীর তৎপরতায় অঘোষিত লকডাউন চলছে। এতে কর্মহীন হয়ে অনেকেই মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

২৫ মার্চ থেকে অঘোষিত লকডাউনের ফলে অনেকের ঘরেই খাবার নেই। করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সবকিছু যখন বন্ধ, তখন নিরুপায় হয়ে মুঠোফোনে কল দিয়ে ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) এমএম মাহমুদ হাসানের কাছে তাদের সমস্যার কথা বলেন দুই ব্যক্তি। কিছুক্ষণ পর তিনি ওই ২ ব্যক্তির পরিবারে ১০ দিনের জন্য খাবার পৌঁছে দেন। সোমবার ঝালকাঠির কৃষ্ণকাঠি এলাকার ২টি পরিবারকে তিনি এ মানবিক সহায়তা প্রদান করেন।

জানা যায়, ঝালকাঠি শহরের কৃষ্ণকাঠি এলাকার অসহায় দুটি পরিবার তাদের স্ত্রী-সন্তানদের মুখে দু’বেলা দু’মুঠো খাবার তুলে দিতে না পেরে উপায়হীন হয়ে খাদ্যসামগ্রী পাওয়ার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাহমুদ হাসানকে ফোন দেন। ফোন পেয়ে পুলিশ সুপারের নির্দেশে ওই পরিবারের জন্য মুহূর্তেই খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেন তিনি। এতো অল্প সময়ের মধ্যে খাবার পেয়ে পুলিশের এমন মানবিক আচরণে পরিবারগুলো রীতিমত অবাক ও খুশি হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহমুদ হাসান বলেন বলেন, পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশনায় ও অনুপ্রেরণায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে অসহায় পরিবারের জন্য এমন মানবিক সহায়তা প্রদান করে যাচ্ছি অনেক পরিবারকেই। খেটে খাওয়া পরিবারগুলো এ সময়টাতে খুব কষ্টে আছেন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে তাদের বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে। সাধ্যমতো তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি।

তিনি আরো বলেন, আমরা জনগণের পুলিশ, জনগণেরই সেবক। দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে আইজিপি মহোদয়ের নির্দেশনায় বাংলাদেশ পুলিশ মানবিক দর্শনে উজ্জীবিত হয়ে মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। জনগণের যেকোন প্রয়োজনে আমরা অগ্রভাগে থেকেই কাজ করবো এটাই আমাদের অঙ্গিকার।

মানবকণ্ঠ/আরবি



poisha bazar

ads
ads