নাগেশ্বরীতে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ

নাগেশ্বরীতে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীর মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ৩১ মার্চ ২০২০, ২১:৪২

কুড়িগ্রামের গোপালপুর বোর্ডেরহাট বাজারে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অসুস্থ ওই ছাত্রীকে কুড়িগ্রাম জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নাগেশ্বরী উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের গোপালপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির শিশু ছাত্রী রবিবার বিকেলে তার বাড়ির পাশে গোপালপুর বোর্ডেরহাট বাজারে পুরাতন বই কিনতে যায়।

এ সময় আশেপাশে লোকজন না থাকায় হারাগিলিরপাড় গ্রামের শাহজাহান আলীর ছেলে ও গোপালপুর বোর্ডেরহাট বাজারের ভাঙারি ব্যবসায়ী সুজন মিয়া তাকে কৌশলে দোকানে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানেই সুজন শিশুটির মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে এবং বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়।

রাতে রক্তপাত শুরু হলে পরিবারের কাছে ঘটনাটি জানায় ধর্ষণের শিকার শিশুটি। পরে রাত দেড়টার দিকে শিশুটিকে নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে গতকাল সোমবার বিকেলে তাকে কুড়িগ্রাম জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে আজ মঙ্গলবার নাগেশ্বরী থানায় ধর্ষক সুজন মিয়াকে (৩৫) আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা করেন। নাগেশ্বরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রওশন কবির জানান, আসামিকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে/সাগর




Loading...
ads






Loading...