করোনার আতঙ্কে রোগী শূন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল!

করোনার আতঙ্কে রোগী শূন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল!

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৫ মার্চ ২০২০, ২২:২৯

নরসিংদীর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে করোনা আতঙ্কে কমে গেছে রোগী। প্রতিদিন যেখানে ৫০০ থেকে ৬০০ রোগী চিকিৎসা সেবা নিতো সেখানে এখন মাত্র ১৫০ জন রোগী নিচ্ছেন চিকিৎসা সেবা। কমেছে ভর্তি রোগীর সংখ্যাও। করোনা ভাইরাসের আতঙ্কের ফলেই এই অবস্থা বিরাজমান বলে জানিয়েছেন হাসপাতালটির আবাসিক মেডিকেল চিকিৎসক আমিরুল হক শামীম।

সরেজমিনে নরসিংদী সদর হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, বর্হির্বিভাগে বসে আছেন চিকিৎসক কিন্তুু নেই কোনো রোগী। দন্ত বিভাগের সামনে বসে আছে কয়েকজন রোগী। টিকেট কাউন্টারে নেই সেবা নিতে আসা কোনো রোগীর ভিড়।হাসপাতালটির জরুরী বিভাগে আছে কয়েকজন রোগী আর করোনা আতঙ্কে চিকিৎসক বসে আছেন (পিপিআই) সুরক্ষা পোষাক পরে দেখছেন রোগী।

হাসপাতালটির দ্বিতীয় তলায় রয়েছে পুরুষ, মহিলা ও শিশু ওয়ার্ড। এই তিনটি ওয়ার্ডে সব মিলিয়ে মাত্র ২০ জন রয়েছে ভর্তি রোগী। সেখানে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগী ভর্তি রয়েছে।

হাসপাতালটির আবাসিক মেডিকেল চিকিৎসক আমিরুল হক শামীম বলেন, সারাবিশ্বেই এখন করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ দেখা দিয়েছে।প্রবাসীরা কেউ কেউ এই ভাইরাস নিয়ে দেশে চলে আসতেছে। আইডিসিআর এর মাধ্যমে বাংলাদেশেও করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।সাধারণ রোগীরা হাসপাতালে আসতে ইতস্ততা বোধ করছে আর একটা টিউমারের রোগী যার পরে অপারেশন করলেও চলবে এমন রোগীরা হাসপাতালটা এড়িয়ে চলছে। হাসপাতালে সব ধরনের রোগী আসে যার ফলে আসলে করোনায় আক্রান্তের সম্ভাবনা আছে তাদের মধ্যে এমন আতঙ্ক কাজ করছে।তবে হাসপাতালে যেসব রোগী সর্দি, কাশি, জ্বর, শ্বাসকষ্ট অথবা বমি এমন রোগীকে আলাদা ট্রায়েস রুমে চিকিৎসার ব্যাবস্থা করেছি।

মানবকণ্ঠ/আরবি






ads