টেন্ডার ছাড়াই সরকারি কাছ কাটার অভিযোগ

টেন্ডার ছাড়াই সরকারি কাছ কাটার অভিযোগ

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:১০

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার ৪১ নং চাপিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেনের বিরুদ্ধে বিনা টেন্ডারে বিদ্যালয়ের মেহগনির ৫টি গাছ কাটার অভিযোগ পাওয়া গেছে। যার আনুমানিক মূল্য আড়াই লাখ টাকা।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিদ্যালয়ের জায়গা এক সাড়িতে ৫টি গাছ শ্রমিক দিয়ে কাটা হচ্ছে। কাছ কাটার কাছেই রয়েছেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তিনি দাঁড়িয়ে থেকে শ্রমিক দিয়ে ওই মেহগনির গাছ কাটাচ্ছেন। এলাকাবাসী টেন্ডার ছাড়াই গাছ কাটার বিষয়ে নিষেধ করলেও কারও কথা তিনি কর্নপাত কনেনি।

গাছ কাটার বিষয়ে প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেন বলেন, ম্যানেজিং কমিটি ও এলজিইডি কর্মকর্তাদের অনুমতি নিয়েই গাছ কাটা হয়েছে। বিদ্যালয়ের উন্নয়নের জন্য গাছগুলা কাটা হচ্ছে। পরে টেন্ডার আহবান করে উম্মুক্তভাবে গাছগুলা বিক্রি হবে।

স্কুল পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইউপি সদস্য আব্দুর রহমান জানান, গাছ কাটার পূর্বে পরিচালনা কমিটির সকল সদস্যদের অনুমতি নিয়ে রেজুলেশনের মাধ্যমে গাছ কাটা হচ্ছে। টেন্ডার আহ্বান করে গাছ বিক্রি করা হবে। ওই অর্থ টাকা বিদ্যালয়ের উন্নয়নে লাগানো হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তমাল হোসেন বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

মানবকণ্ঠ/আরবি





ads







Loading...