মধ্যরাতে খুলনার তিন স্থানে আগুন, নিহত ১

মানবকণ্ঠ
খুলনার তিন স্থানে আগুন - মানবকণ্ঠ।

  • আলমগীর হান্নান, খুলনা ব্যুরো
  • ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৩১

খুলনায় পৃথক তিনটি স্থানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। রোববার দিবাগত রাতে এ অগ্নিকাণ্ডগুলোর সূত্রপাত হয়। আগুনে পুড়ে নগরীর হরিণটানা থানার শ্মশান ঘাট এলাকায় এক বৃদ্ধা ভিক্ষুক (৬৫) মারা গেছেন।

ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রুম সূত্র জানায়, রাত ১২ টার দিকে হরিণটানার শ্মশান ঘাট এলাকায় একটি কুঁড়েঘরে আগুন লাগে। খবর পেয়ে খুলনা সদরের স্টেশন অফিসার মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে একটি ইউনিট সেখানে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে ঘটনাস্থল থেকে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

হরিনটানা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুল আলম বলেন, আগুন নেভানোর পর ওই বৃদ্ধার মরদেহ পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেছে ফায়ার সার্ভিস। প্রাথমিকভাবে তার নাম বা পরিচয় পাওয়া যায়নি। স্থানীরা জানিয়েছেন, তিনি পেশায় ভিক্ষুক ছিলেন। শ্মশানঘাট এলাকায় একটি কুঁড়েঘরে একা বসবাস করতেন।

অপরদিকে নগরীর পশ্চিম রূপসা এলাকায় কোকাকোলা গোডাউনের পাশে একটি স-মিলের কাঠের আড়তে আগুন লেগেছে। কালাম নামের এক ব্যক্তি ওই স-মিলের মালিক।

ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রুম সূত্র জানায়, রাত ১ টার দিকে ওই স-মিলের কাঠের আড়তে আগুন লাগে। খবর পেয়ে টুটপাড়া স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো নজরুল ইসলামের নেতৃত্বে সেখানে দুইটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সেখানের আগুন নিয়ন্ত্রনে আসেনি।

অপরদিকে খুলনার দিঘলিয়া উপজেলার জামান জুট মিলেও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রূম সূত্র জানায়, রাত ১ টার দিকে জামান জুট মিলে আগুন লাগে। খবর পেয়ে খুলনা স্থল-কাম নদীর সাইট স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. কায়েমুর জামানের নেতৃত্বে সেখানে দুইটি ইউনিট গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে



poisha bazar

ads
ads