সাগর-রুনি হত্যার বিচার দাবিতে না.গঞ্জে প্রতীকী অনশন

সাগর-রুনি হত্যার বিচার দাবিতে না.গঞ্জে প্রতীকী অনশন
সাগর-রুনি হত্যার বিচার দাবিতে না.গঞ্জে প্রতীকী অনশন - ছবি: প্রতিনিধি

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:৪৪

সাংবাদিক দম্পতি সাগর রুনি হত্যাকাণ্ডের বিচারের দাবিতে প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটি।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

সিদ্ধিরগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবুলের সভাপতিত্বে কর্মসূচীতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম, সাবেক সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ রুমন রেজা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সোজাসাপটার সম্পাদক আবু সাউদ আল মাসুদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম,সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেইন স্মিথ, রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মীর আব্দুল আলিমসহ নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন সংবাদপত্র, টেলিভিশন ও অনলাইন মিডিয়ার বিভিন্ন সাংবাদিকবৃন্দ।

অনশন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, ৮ বছরে ৭১ বার সাংবাদিক সাগর-রুনির হত্যাকাণ্ডের তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের সময় পেরিয়েছে। একটি রাষ্ট্রের জন্য এর চেয়ে বড় ব্যর্থতা আর কি হতে পারে? যেখানে সাংবাদিকরা সমাজের বিভিন্ন অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে কাজ করে জনসাধারণের কথা তুলে ধরে দেশ থেকে বিশ্বে। কিন্তু এই তাদের বিচারের ক্ষেত্রে যদি এত বিলম্ব হয় তাহলে সাধারণ মানুষের অবস্থান কোথায় তা ধারণা করা যায়।

কর্মসূচিতে সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করে ৫ দফা দাবি জানিয়ে বক্তারা আরো বলেন, সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের পর এখন পর্যন্ত ঘটনা তদন্তের বিষয়ে সরকার ও তদন্ত সংস্থার গৃহীত পদক্ষেপ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সরকারী প্রেসনোট জারি করতে হবে। তদন্ত কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ডিআইজি কর্মকর্তাদের মধ্যে থেকে ৫ সদস্যের একটি পরার্মশক ও তদারক কমিটি গঠন করতে হবে। তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে সম্পাদক পরিষদকে প্রতিমাসে অন্তত একবার জানাতে হবে। ২০২১ সালের ১১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সাগর-রুনির খুনিদের গ্রেফতার করে বিচার কাজ সম্পন্ন করতে হবে। সাগর-রুনি ছাড়া বিচারবর্হিভূত সাংবাদিক হত্যা, নির্যাতন ও হয়রানির শিকার অপরাধে জড়িতদের তাদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বিচার করতে হবে।

পরে অনশনে অংশকারীদের সরবত পান করিয়ে অনশন ভঙ্গ করান নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান মাসুম।





ads