গাইবান্ধায় প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা

মানবকণ্ঠ

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২২ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:২৬

আর মাত্র ৬ দিন পর হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা। প্রতিবছরের ন্যায় এবারো মাঘ মাসের পঞ্চমী তিথিতে অনুষ্ঠিত হবে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব বিদ্যার দেবী সরস্বতী পূজা।

পূজা উপলক্ষে শীতকে উপেক্ষা করে কার্যত ভক্তির স্বরপ প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন গাইবান্ধা শহরের ব্রিজরোড কালিবাড়িপাড়ার মৃৎশিল্পী অলোক দে টুটুনসহ শহরের মৃৎশিল্পীরা।

আর মাত্র ৬ দিন পর হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে জ্ঞানের আলো ছড়াতে আসবেন বিদ্যার দেবী মা সরস্বতী। তাই মৃৎশিল্পীদেরও বিশ্রামের সময় নেই। দিনরাত প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।

গাইবান্ধা জেলা শহরের ব্রিজরোড কালিবাড়িপাড়া, ভি,এইড রোডস্থ কালিবাড়ি মন্দির ঘুরে দেখা গেছে, মৃৎশিল্পীরা তৈরি করছে ছোট-বড় বিভিন্ন সাইজের প্রতিমা। খড় ও মাটি দিয়ে তৈরি প্রতিমার গায়ে দেয়া হচ্ছে মাটির প্রলেপ। চলছে রোদে শুকিয়ে রঙ ও অলঙ্কার পরানোর কাজ।

অলোক দে টুটুন জানান, সারা বছরই বিভিন্ন প্রতিমা তৈরি করে থাকি। আগামী ২৯ জানুয়ারি সরস্বতী পূজা। এ উপলক্ষে সরস্বতীর প্রতিমা বানাচ্ছি। এক একটি প্রতিমা ৬০০ টাকা থেকে ৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হবে। অনেকেই তাদের পছন্দ মতো প্রতিমার অর্ডার দিচ্ছেন। আপাতত মৃৎশিল্পীদের কর্ম ব্যস্ততা তুঙ্গে।

প্রতিবছরের মতো জ্ঞানের আলো ছড়াতে আবারও এসেছেন বিদ্যার দেবী সরস্বতী। বিদ্যা ও সংগীতের দেবী সরস্বতীর আরাধনাকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠেয় একটি অন্যতম প্রধান হিন্দু উৎস তিথিটি শ্রীপঞ্চমী বা বসন্ত পঞ্চমী নামেও পরিচিত।

দিনটি উপলক্ষে গাইবান্ধা শহরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় মন্দির, বাসাবাড়ি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সরস্বতী পূজার আয়োজন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে শহরের ব্রিজরোড দূর্গাবাড়ি মন্দিরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/আরবি






ads