আ’লীগের সম্মেলন স্থাগিত, পুলিশ আহতের ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি

মানবকণ্ঠ
ছবি - প্রতিবেদক।

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৫ নভেম্বর ২০১৯, ২১:২২

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৩ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ১৫ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। সোমবার বিকালে সম্মেলনস্থল শ্রীরামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের ফলে ওই ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থগিত করা হয়েছে। সংঘর্ষে ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগামী ৯ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন করতে জেলার প্রতিটি ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলায় দলীয় সম্মেলন চলছে। সোমবার বিকালে শ্রীরামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলন আয়োজন করা হয়। ওই সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে প্রচার করা হয়। সম্মেলন শুরু হওয়ার আগে স্থানীয় সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেনের অনুগত সভাপতি প্রার্থী রফিকুল ইসলাম ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুলের অনুগত শ্রীরামপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সভাপতি প্রার্থী আবুল হাশেম গ্রুপের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এ সময় দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের অন্তত ১২ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহতরা রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও স্থানীয় হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিয়েছেন। সংঘর্ষে ৩ জন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের পক্ষ থেকে কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি। তবে সংঘর্ষে ৩ জন পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মোতাহার হোসেন ও পাটগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বাবুলের সাথে যোগাযোগ করে তাদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত জানান, সম্মেলনকে ঘিরে আওয়ামী লীগের বিদ্যমান দুইটি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। আইনশৃঙ্গলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে পারে বলে সম্মেলন স্থাগিত করা হয়েছে। পুলিশ আহত হওয়ার ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে






ads