৫শ' টাকার চুক্তিতে পরীক্ষা দিতে এসে আটক ৪, দালালের জেল

মানবকণ্ঠ
আটক দালাল - ছবি : প্রতিবেদক

poisha bazar

  • সংবাদদাতা, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৩৭,  আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৪৬

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় জালিয়াতি করে ভূয়া পরীক্ষার্থী সেজে অংশ নেওয়ার অভিযোগে ৪ জন আটক হয়েছেন। এ কাজে সহায়তাকারী (দালাল) বল্লভপুর গ্রামের ইউসুফ গাজীর ছেলে হাবিবুল্লাহ গাজীকে ২ বছরের জেল ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে জালিয়াতির মূল হোতা ব্রুশাসন ছিদ্দিকিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মহাতাব উদ্দীন পলাতক রয়েছেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় উপজেলার ভুরুলিয়া নাগবাটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ৪ ভূয়া পরীক্ষার্থী হলো- বুশরা আক্তার মিম, সুমাইয়া পারভীন, আতিক হাসান ও মোহামাদুল্লাহ। মুচলেকা নিয়ে তাদেরকে নিজ নিজ অভিভাবকের হেফাজতে দেওয়া হয়েছে।

আটক পরীক্ষার্থীরা উপজেলার ৬৯ বংশীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সাতক্ষীরা তাব ইবনে মাদ্রাসায় পড়াশুনা করতো। এরা সবাই ৫০০ টাকা চুক্তিতে ব্রুশাসন সিদ্দিকিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষার্থী হিসাবে পরীক্ষায় অংশ নেয়।

উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) নাহিদ হাসান খান জানান, জালিয়াতি করে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার খবর গোপনে জানতে পেরে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল থেকে ৪ শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। এসময়ে জালিয়াতির মূল হোতা ব্রুশাসন ছিদ্দিকিয়া স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মহাতাব উদ্দীন পালিয়ে যান।

আটককৃতকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হুদা নিশ্চিত করেন।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads





Loading...