তাড়াশে বিএনপি’র দু গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০

মানবকণ্ঠ
ছবি - প্রতিবেদক।

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৪:৫৫,  আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৪৫

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা বিএনপির দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার দুপুরে তাড়াশ থানা গেট এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, গত ২০ সেপ্টেম্বর তাড়াশ উপজেলা বিএনপির কমিটি বিলুপ্ত করে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি নিয়ে তাড়াশে বিএনপির দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে দ্বন্দ্বে বিভক্তি দেখা দেয়। এ নিয়ে দলটি দু’টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। উক্ত কমিটিকে বিতর্কিত দাবি করে আহ্বায়ক কমিটির বিপক্ষে অবস্থান নেয় সাবেক সভাপতি খন্দকার সেলিম জাহাঙ্গীর।

অপরদিকে সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার আফসার আলীর নেতৃত্বে পুরো দল আহ্বায়ক কমিটির পক্ষে অবস্থান নেয়। মঙ্গলবার উল্লেখিত আহ্বায়ক কমিটির প্রথম মিটিং উপলক্ষ্যে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ তাড়াশে আসার পথে খুটিগাছা এলাকায় উশৃঙ্খল কতিপয় বিএনপির নেতা-কর্মী গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে প্রাইভেটকার ভাঙচুর করে।

জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুন্সি জাহিদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ সুইটসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। অতঃপর নেতৃবৃন্দ দলীয় কার্যালয়ে আসলে সেখানে পুলিশ অবস্থান নেন। পরে বাধার মুখে তারা তাড়াশ মহুরী অফিস চত্বরে মিটিং যোগদেয় ও মিটিং শেষ করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাড়াশ উপজেলা বিএনপির এক গ্রুপ অন্যগ্রুপকে দায়ী করছে। এ ঘটনায় তাড়াশ সদরে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার ওসি মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষেও খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।






ads