নারায়ণগঞ্জে ছুরিকাঘাতে পরিবহন শ্রমিক হত্যা

মানবকণ্ঠ

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১১:২০,  আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১১:২৬

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হওয়া ইউসুফ (২৫) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (৯ অক্টোবর) সকালে শহরের টানবাজার ইয়ার্ন মার্চেন্ট ক্লাবের পাশে খালি জায়গা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ইউসুফ ফতুল্লার ইসদাইর গাবতলী মাজার এলাকার মৃত কাশেমের ছেলে। তিনি ঢাকা-নারায়গঞ্জ রুটে চলাচলরত উৎসব পরিবহনের গাড়ির হেলপার।

দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে বলে স্বজনরা দাবি করেছেন। নিহতের ফুপু নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। তবে এ ঘটনায় পুলিশ এখনো কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

নিহতের ফুফু মমতাজ বেগম জানান, বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে ইউসুফ তার ছোট ভাই মানিককে নিয়ে ইসদাইর গাবতলী মাজারের পেছনে একটি বাসায় বসবাস করতো। গত সোমবার সন্ধ্যায় গাড়ীতে যাওয়ার কথা বলে ইউসুফ বাসা থেকে বের হয়ে যায়। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ ছিল। পরদিন ভোর সাড়ে ৬টায় অজ্ঞাত পরিচয়ে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানায় ইউসুফকে কে বা কারা হত্যা করে লাশ টানবাজার ফেলে গেছে। পরে তার ছোট ভাই মানিক ঘটনাস্থলে গিয়ে ইউসুফের লাশ শনাক্ত করে।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক গোলাম মোস্তফা জানান, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের বুকের ডান পশে একটি ছুরির আঘাত এবং পিঠে চারটি ছুরির আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধারণা করা যাচ্ছে তাকে ছিনতাইকারী কিংবা পূর্ব কোন বিরোধের জেরে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ধারালো ছুরি দিয়ে হত্যা করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। নিহতে্র ফুফু বাদি হয়ে মামলা করেছেন। অপরাধীদের শনাক্ত ও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মানবকণ্ঠ/জেএস




Loading...
ads




Loading...