ময়লা পানি খাওয়ানোর মামলায় রিমান্ডে ৩

ময়লা পানি খাওয়ানোর মামলায় রিমান্ডে ৩
আটক আসামী - ছবি: প্রতিবেদক।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৯ অক্টোবর ২০১৯, ২১:০৪

বরিশালের হিজলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামে এক যুবককে নির্মমভাবে নির্যাতনের পর ময়লা পানি খাওয়ানো মামলায় গ্রেফতার তিন আসামির বিরুদ্ধে চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার বিকেলে বরিশালের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের বিচারক সাব্বির মো. খালিদ এ নির্দেশ দেন।

এর আগে আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়। পাশাপাশি তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে সাত দিন করে রিমান্ড চেয়ে বিচারকের কাছে আবেদন করেন হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক।

ওই আবেদনের প্রেক্ষিতে আসামিদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে চার দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

রিমান্ড প্রাপ্ত আসামিরা হলেন, ঘটনার মূল হোতা টুমচর গ্রামের মাহবুব সিকদার, আব্দুর রশিদ মাতুব্বর ও কবির হোসেন সরদার।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। তাতে দেখা যায়, একজন যুবকের হাত পিঠমোড়া দিয়ে বাঁধা অবস্থায় কয়েকজন ব্যক্তি তার উপর নির্যাতন চালাচ্ছে। এর এক পর্যায়ে ওই যুবকের বুকে এক ব্যক্তি পা দিয়ে চেপে ধরে বদনায় থাকা (শৌচ কাজে ব্যবহৃত) ময়লা তরল পদার্থ খাওয়ানো হচ্ছে। নিজেকে রক্ষার জন্য ওই যুবক ধস্তাধস্তি করলেও হাত বাঁধা থাকায় শেষ রক্ষা হয়নি।

নির্যাতিত যুবক আজম ব্যাপারী হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের টুমচর গ্রামের মহিউদ্দিন ব্যাপারী ছেলে। গত ৩০ সেপ্টেম্বর সংঘটিত এই ঘটনার ওই ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর তৎপরতা শুরু করে পুলিশ।

এ ঘটনার আট দিন পর নির্যাতিতের বাবা মহিউদ্দিন ব্যাপারী বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরো দুই-তিন জনকে আসামি করে হিজলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলায় আজমকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণ, নির্যাতন, চাঁদা দাবী এবং মানহানির অভিযোগ করা হয়। পুলিশ ওই দিনই অভিযান চালিয়ে প্রধান অভিযুক্ত টুমচর গ্রামের মাহবুব সিকদার এবং তার দুই সহযোগী আব্দুর রশিদ মাতুব্বর ও কবির হোসেন সরদারকে গ্রেফতার করে।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads




Loading...