চুয়াডাঙ্গায় নেতার হাতে নৃশংসভাবে খুন যুবলীগ কর্মী

নিহত পল্টু - ছবি: সংগৃহীত।

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৩ আগস্ট ২০১৯, ২০:৫৩

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা রেল ইয়ার্ডে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে যুবলীগ কর্মী পল্টুকে (৩৮) নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে যুবলীগ নেতা তোতা ও মান্নানসহ তাদের লোকজন। এ সময় আহত হয় অপর যুবলীগ কর্মী মনজুরুল ইসলাম। নিহত পল্টু উপজেলার দর্শনা পৌর শহরের ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রবের ছেলে।

শুক্রবার (২৩ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে পল্টুর মৃত্যু হয়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকাল ৫ টার দিকে দর্শনা রেল ইয়ার্ডে যুবলীগ কর্মী পল্টু ও মনজুরুল বসে গল্প করছিল। এ সময় দর্শনা পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আসলাম আলী তোতা ও যুবলীগ নেতা আব্দুল মান্নানসহ ৮-১০জন তাদেরকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। আহতদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পল্টুকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, গত ২ বছর আগে দর্শনা বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্নে যুবলীগ নেতা শেখ আসলাম আলী তোতা, আব্দুল মান্নান ও আব্দুল হান্নান ছোট’র নেতৃত্বে ১০-১৫জন নিহত পল্টুর সহযোগী হেলালকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এই ঘটনার জের ধরে গত ২ মাস আগে হেলাল ও পল্টুসহ তাদের লোকজন তোতা ও মান্নান সমর্থিত যুবলীগ কর্মী দর্শনা পুরাতন বাজারস্থ দিপুকে পিটিয়ে আহত করে। এই ঘটনার প্রতিশোধ নিতেই পল্টুকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হলো।

নিহত পল্টুর ভাই দর্শনা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মঈনউদ্দীন মন্টু জানান, তোতা ও মান্নানসহ তাদের লোকজন এই ঘটনা ঘটিয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

দর্শনা পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে আমি জানিনা।

দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আলী মনসুর বাবু জানান, আমি ঘটনাটি শুনেছি। কিন্তু কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা আমার জানা নেই।

দর্শনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোল্যা মোঃ সেলিম জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তোতা ও মান্নানসহ তাদের লোকজন এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

দামুড়হুদা থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তদন্তের পরই প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে মর্গে আছে বলেও জানান তিনি।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads





Loading...