চকলেট খাওয়ানোর কথা বলে শিশুকে ধর্ষণ


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১২ জুলাই ২০১৯, ১২:০১,  আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৯, ০০:০৮

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় চকলেটের লোভ দেখিয়ে ৬ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে পঞ্চাশোর্ধ আব্দুল মালেক নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। বুধবার দুুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত পঞ্চাশোর্ধ আব্দুল মালেক পলাতক রয়েছেন। গুরুতর জখম অবস্থায় ওই শিশুকে বৃহস্পতিবার রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, আবদুল মালেক (৫৫) উপজেলার পদ্মবিলা ইউনিয়নে শ্বশুরবাড়িতে থাকেন। ওই শিশু কন্যা দুুপুরে বাড়ির পাশে খেলা করছিল। এ সময় আব্দুল মালেক ওই শিশুকে চকলেট দেওয়ার লোভ দেখিয়ে একটি ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে বিষয়টি কাউকে না জানাতে শিশুটিকে ভয়ভীতি দেখান তিনি।

নির্যাতিতা শিশুর মা জানান, দুপুরে শিশুটিকে গোসল করাতে গিয়ে তার দাদি রক্তের দাগ দেখতে পান। শিশুটির কাছে জানতে চাইলেও ভয়ে বাড়ির কাউকে কিছু বলেনি। ধর্ষণের কারণে ঘটনার দিন সন্ধ্যায় শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে সে তার মামীর কাছে ঘটনার বর্ণনা দেয়। সকালে বিষয়টি জানাজানি হলে পালিয়ে যায় আব্দুল মালেক। 

জেলা পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান জানান, শিশুকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। পলাতক আবদুল মালেককে ধরতে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

মানবকণ্ঠ/এএম




Loading...
ads




Loading...