শাহজালালে সাড়ে ১২ কোটি টাকা মূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা উদ্ধার: গ্রেফতার-১


  • রাসেল খান, তুরাগ প্রতিনিধি
  • ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২২

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পোশাক রফতানির আড়ালে বিপুল পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা বিদেশে পাচারকালে মো. হাসান আলী নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে এভিয়েশন সিকিউরিটর (এভসেক)। তিনি স্টার এক্সপ্রেসের কর্মী বলে জানা গেছে।

গতকাল সোমবার রাত সোয়া ১০ টার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের রফতানি কার্গো ভিলেজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটকৃত হাসান আলীর কাছে থেকে ৫৪ লাখ ৭৫ হাজার সৌদি রিয়াল, ২০ হাজার সিঙ্গাপুরের ডলার পাওয়া যায়। যার বাংলাদেশি মূল্য ১২ কোটি ৫১ লাখ ৭৫ হাজার ৬৯১ টাকার সমান।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান আজ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে কনসাইনম্যান্টটি সিঙ্গাপুর কার্গোতে (এসকিউ-৪৪৭) করে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে এসব মুদ্রা বিদেশে পাচারের চেষ্টা চলছিল। কার্টনের ভেতরে রিয়ালগুলো কার্বন পেপারে মোড়ানো ছিল। ফ্রেইটার প্রতিষ্ঠান স্টার এক্সপ্রেস লাইনের চালান থেকে মুদ্রা পাওয়া যায়।

গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আরো জানান, আজ মঙ্গলবার সকালে বৈদেশিক মূদ্রার এ চালানটি গণনা শেষে সেখানে ৫৪ লাখ ৭৫ হাজার সৌদি রিয়াল ও ২০ হাজার ২০০ সিঙ্গাপুরের ডলার ছিল। যা বাংলাদেশি ১২ কোটি ৫১ লাখ ৭৫ হাজার ৬৯১ টাকার সমান।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে বিমানবন্দরের ভেতরে রফতানি কার্গোভিলেজে সিকিউরিটি স্ক্যানিংয়ের সময় সিঙ্গাপুরগামী এ কার্টন শনাক্ত করেন এভিয়েশন সিকিউরিটর (এভসেক) সদস্য গাজী কাইয়ুম।

প্রাথমিক জিজ্ঞসাবাদে অভিযুক্ত ব্যক্তি ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। উদ্ধার করা মালামালকে রেডিমেড গার্মেন্টস (আরএমজি)' উল্লেখ করা হয়, যার গায়ে এজেন্টের নাম 'ইউনাইটেড সার্ভিস এজেন্সি ঢাকা বিডি লিমিটেড উল্লেখ ছিল।

মানবকণ্ঠ/আরআই


poisha bazar

ads
ads