ডেঙ্গুতে চলে গেল ছোট্ট রাইয়ান, বোনের অবস্থাও গুরুতর

- ছবি- সংগৃহীত।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৪৪,  আপডেট: ০৬ আগস্ট ২০১৯, ১৭:৫৮

মহামারী আকার ধারণ করেছে ডেঙ্গু। সরকারি হিসেবে এখনো পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ১৮ জন। তবে গণমাধ্যমের হিসেবে এ সংখ্যা ৯০ ছাড়িয়ে গেছে। এদেরই একজন ছোট্ট রাইয়ান। তার মৃত্যুশোকে পাথর মা ও বাবা। এদিকে রাইয়ানের ছোট্ট বোন মালিহাও ডেঙ্গুজ্বরে হাসপাতালে ভর্তি। তার অবস্থাও গুরুতর।

রাইয়ানের মা রোমানা বলেন, মালিহার আগে জ্বর এসেছিল। ওরা দু ভাই-বোন যা করে একসঙ্গেই করে। বোনের জ্বর এলে ছেলে আমার বারবার বলছিল- আমারও জ্বর আসুক, তা হলে বোনের পাশে শুয়ে ওর সঙ্গে কথা বলতে পারব।

তার কথা যে এমনভাবে সত্যি হয়ে যাবে কে তা জানত? রাইয়ানের মৃত্যুর মুহূর্ত স্মরণ করে দিশেহারা রোমানা বলেন, রাতে ঘুমের ঘরে আমার ছেলে বলছিল- সব ভেঙে চুরে আসতেছে। আসিস না, তুই আসিস না।

বলতে বলতে কেঁদে ওঠেন রোমানা। ছেলের স্মৃতি হাতড়ে তিনি বলেন, জ্বরে পড়ার আগে ঘরের ভেতরে ছেলেটা ফুটবল খেলছিল। কী জোরে জোরে বল পেটাচ্ছিল। ওইটাই মনে হয় ওর শেষ খেলা ছিল।

ছোট্ট বোনটির অবস্থাও গুরুতর। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে মালিহা সরকার (৬) মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে।

রাইয়ানের বাবা মমিন সরকার জানান, মালিহা ১ আগস্ট থেকে ভর্তি আছে স্কয়ার হাসপাতালের ১১২৩ নম্বর বেডে। ঠিক এই বেডেই ৩১ জুলাই ভর্তি হয়েছিল রাইয়ান। ছেলের শরীরের অবস্থা বেশি খারাপ হলে তাকে নিবিড় পরিচর্চাকেন্দ্রে নেয়া হয়। ঠিক তখনই মালিহাকে এই বেডে ভর্তি করা হয়।

স্কয়ার হাসপাতালে মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র রাইয়ানের মৃত্যু হয় শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে। 

মানবকণ্ঠ/এইচকে 




Loading...
ads





Loading...