ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা তৈরিতে পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের মানববন্ধন


poisha bazar

  • নিজস্ব প্রতিবেদক
  • ০৫ আগস্ট ২০১৯, ১৭:০৮,  আপডেট: ০৫ আগস্ট ২০১৯, ১৭:১৪

সাম্প্রতিককালে দেশের অন্যতম বড় সমস্যা ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা তৈরির জন্য 'ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ' এবং আরটিভি এর উদ্যোগে একটি মানববন্ধন এর আয়োজন করেছে। রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বরে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এই উদ্যোগের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে অংশগ্রহণ করে কনসিটো পিআর। মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেডের মার্কেটিং ম্যানেজার সালাউদ্দিন আহমেদ তারেক, আরটিভির সিইও আশিক রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, প্রফেসর এ জে এম শাফিউল আলম ভুঁইয়া এবং অভিনেতা রহমত আলীসহ আরো অনেকে।

‘জমা পানির ক্ষমা নাই’ ট্যাগলাইন শীর্ষক এই মানববন্ধনে সকলকে সচেতন করতে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড নিয়ে সমবেত হয় বিভিন্ন স্তরের ব্যক্তিবর্গ। জমে থাকা পানিতে এডিস মশার বংশ বিস্তার রোধ করতে দেশের প্রতিটি মানুষের নিজ নিজ অবস্থান থেকে সচেতন হয়ে যেন জমে থাকা পানি পরিষ্কার করে তার জন্যই পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খণ্ডকালীন শিক্ষক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, এটি অত্যন্ত দুঃখজনক ও আশঙ্কাজনক যে দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। এ সমস্যা থেকে দেশকে যত দ্রুত সম্ভব মুক্ত করতে হবে। ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ এবং আরটিভি-এর এই মানববন্ধন ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনগণের প্রধানত কী করনীয় সে বিষয়ে তাদেরকে স্পষ্টভাবে জানাচ্ছে। তারা যদি এগুলো মেনে চলার ব্যাপারে সচেতন হয় তবে দেশকে খুব দ্রুত এই সমস্যা থেকে মুক্ত করা সম্ভব হবে বলে আমার বিশ্বাস।

আরটিভি’র সিইও আশিক রহমান বলেন, আজকের এই মানববন্ধনের প্রথম ও প্রধান উদ্দেশ্য হলো মানুষকে সচেতন করা। বিগত কিছুদিন ধরে আমরা দেখছি ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব প্রতিনিয়ত বাড়ছে, হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে যার কারণে আমরা আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ছি। কিন্তু আমরা একবারও ভেবে দেখছি না এটি কি কারণে হচ্ছে। আমরা যদি নিজেদের ঘরবাড়ি এবং উঠান, ছাদ, বাগান পরিষ্কার রাখি তাহলে এডিস মশা বংশ বিস্তার করতে পারবে না। আশেপাশের মাঠ-ঘাট পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি আমরা সকলে যদি নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসি তাহলে খুব সহজেই ডেঙ্গু প্রতিরোধ করা সম্ভব।

রেকিট বেনকিজার বাংলাদেশ লিমিটেডের মার্কেটিং ম্যানেজার ও ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ এর মুখপাত্র সালাউদ্দিন আহমেদ তারেক বলেন, পানির অপর নাম জীবন তবে জমে থাকা পানির অপর নাম মৃত্যুও হতে পারে। দেশের আনাচে কানাচে কোন অংশেই যেন পানি জমে থাকতে না পারে সেই বিষয়ে সকলকে সচেতন করতেই আজকের এই মানববন্ধন। জমে থাকা পানি যথাযথভাবে পরিষ্কার করে এডিস মশার বংশ সম্পূর্ণভাবে নির্মূল করা সম্ভব বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। তাই জাতীয় এই সমস্যা রোধে আমাদের প্রত্যেককেই এই বিষয়টি নিয়ে সচেতন হয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

কনসিটো পিআর-এর সিনিয়র এক্সিকিউটিভ এ.কে.এম. আশরাফ-উজ-জামান (অনিক) বলেন, আমাদের দেশে ডেঙ্গু এখন একটি অন্যতম বড় সমস্যায় পরিণত হয়েছে। তাই এখন প্রয়োজন দেশের সকলের সচেতন হওয়া ও একত্রিত হয়ে এই সমস্যার সমাধান করা। সকলকে সচেতন করতে ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ এবং আরটিভি-এর এই মানববন্ধন নিঃসন্দেহে একটি চমৎকার উদ্যোগ।

মানবকণ্ঠ/এএম




Loading...
ads





Loading...