ইডেন কলেজ বন্ধের বিষয়টি গুজব: অধ্যক্ষ


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৫৯

গতকাল সোমবার রাতে মাইকিং করে রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজ বন্ধ ও ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশনা দেওয়া হয় এমন তথ্যের ভিত্তিতে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশ হয়। তবে কলেজটির অধ্যক্ষের দাবি, অফিসিয়ালি কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তা ছাড়া মাইকিং করার বিষয়টি গতানুগতিক বলে দাবি করেন।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সাংবাদিকদের এমন তথ্য জানান ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সুপ্রিয়া ভট্টাচার্য।

সুপ্রিয়া ভট্টাচার্য বলেন, কলেজ বা ক্যাম্পাস বন্ধের কোনো সিদ্ধান্ত আমরা নেইনি। যেকোনো অফিসিয়াল সিদ্ধান্ত নোটিশের মাধ্যমে জানানো হবে। বর্তমানে কলেজের সার্বিক পরিস্থিতি শান্ত এবং সুন্দর রয়েছে। শিক্ষার্থীরা নির্বিঘ্নে ক্যাম্পাসে চলাচল করছে।

তিনি এ ঘটনাকে গুজব আখ্যা দিয়ে বলেন, আমাদের সাত কলেজের পরীক্ষা চলছে ; ইন্টার্নাল প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষা চলছে, ভাইবা চলছে, প্রথম বর্ষের মেয়েদের টেস্টের রেজাল্ট হচ্ছে আর মাস্টার্সেরও ক্লাস চলছে। সুতরাং সবাই ব্যস্ত। এখন হল খালি করার কোনো নির্দেশনা দেওয়ার প্রশ্নই নেই। এখানে কলেজ বন্ধ বা হল বন্ধের কোনো ব্যাপার নেই।

পূজার ছুটির ব্যাপারে সুপ্রিয়া ভট্টাচার্য বলেন, আগামী বুধবার এবং বৃহস্পতিবারও যথারীতি ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলবে। এরপর থেকে পূজার এবং অন্যান্য ছুটি শুরু হবে। তাছাড়া পূজার বন্ধ যেটি সেটি তো স্বাভাবিক বন্ধ। প্রতিবারের মতো সে সময়ও হোস্টেল খোলা থাকবে।

মাইকিং করা বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, এটি গতানুগতিক। ছাত্রীদের সতর্কতা বিষয়ক এরকম অনেক সময় প্রয়োজন অনুযায়ী মাইকিং করা হয়।

প্রসঙ্গত, ইডেন কলেজ সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও সিট বাণিজ্য নিয়ে গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় জান্নাতুল ফেরদৌস নামে এক ছাত্রলীগ নেত্রীকে হল থেকে মারধর করে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে ইডেন কলেজ ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ সময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা তাদের পদত্যাগেরও দাবি জানায়।

ঘটনার পরদিন রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) চলমান উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে ইডেন কলেজের অডিটোরিয়ামের সামনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা। সংবাদ সম্মেলনের এক পর্যায়ে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পালটাধাওয়া বাঁধে। এ ঘটনায় ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা, কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঋতু আক্তারসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

এর আগে ওই দিনই ২ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয়। উক্ত তদন্ত কমিটিকে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন কেন্দ্রীয় দপ্তর সেলে জমা দেওয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। এর ভেতরই ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের একাংশ সেই তদন্ত কমিটির প্রতি নানা অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলনে অনাস্থা প্রকাশ করেন। একই সঙ্গে ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা এবং সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানাকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা না নিলে গণপদত্যাগের ঘোষণা দেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের ২৫ জন নেত্রী।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ও চলমান উদ্ভূত পরিস্থিতির পর সাংগঠনিক শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে ভিডিও ফুটেজ দেখে ১৬ জনকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারসহ ইডেন শাখা ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

মানবকণ্ঠ/এআই


poisha bazar