মাইক্রোবাস চালককে দিয়ে বাস চালাবে কুবি


  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:১৬

সড়ক পরিবহন আইন না মেনে ভারী গাড়ি চালাতে বাধ্য করার অভিযোগ উঠেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক ড. স্বপন চন্দ্র মজুমদারে বিরুদ্ধে।

রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবাস চালক আহাম্মদ আলী রেজিস্ট্রার বরাবর দেয়া চিঠিতে এই অভিযোগ উঠে আসে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২০১১ সালের ৭ সেপ্টেম্বর হালকা গাড়ির চালক হিসেবে নিয়োগ পান আহম্মদ আলী। তখন থেকেই হালকা গাড়ি হিসেবে মাইক্রোবাস চালিয়ে আসছিলেন তিনি৷ এদিকে গত ২২ সেপ্টেম্বর রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে আহাম্মদ আলীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী বাস চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়। যেটি ভারী গাড়ির অন্তর্ভুক্ত বলে তিনি উল্লেখ্য করেন।

অভিযোগপত্রে তিনি আরও বলেন, হালকা গাড়ির লাইসেন্স দিয়ে ভারী গাড়ি চালানো আইন সঙ্গত নয়। এতে দুর্ঘটনার ঝুঁকিও থাকে! তাই তিনি বাস চালাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ড্রাইভার আহাম্মদ আলী বলেন, "আমি হালকা গাড়ি চালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছি, কিন্তু আমাকে বলা হচ্ছে বাস চালাতে। আমি কোনদিন বাসের ড্রাইভিং সিটেও বসি নাই। আমার লাইসেন্সও হালকা গাড়ির। এখন আমাকে জোরপূর্বক ভারী গাড়ি চালাতে বলতেছে। আমি পরবিহন উপদেষ্টা স্বপন স্যারকে বলেছি, ওনি বলেন আমাকে ভারী গাড়িই চালাতে হবে। কিসে নিয়োগ পেয়েছি সেটা বিষয় না। এখন আমি ভারী গাড়ি চালাতে পারব না।"

এদিকে সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ এর দ্বিতীয় অধ্যায়ের (ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদান, ইত্যাদি) ৪ (২) বলা হয়েছে কোনো ব্যক্তি যে শ্রেণী বা ক্যাটাগরির মোটরযান চালনার লাইসেন্স প্রাপ্ত হইয়াছেন, সেই শ্রেণী বা ক্যাটাগরি ব্যতীত অন্য কোন শ্রেণী বা ক্যাটাগরির মোটরযান চালাইতে পারিবেন না। তবে শর্ত থাকে যে, ভারী ড্রাইভিং লাইসেন্সধারী কোনো ব্যক্তি হালকা ও মধ্যম শ্রেণি বা ক্যাটাগরির মোটরযান চালাইতে পারিবেন।

সড়ক পরিবহন আইনকে অমান্য করে হালকা গাড়ি চালককে ভারী গাড়ি চালাতে বাধ্য করার বিষয়ে জানতে রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. আমিরুল হক চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি অভিযোগটি পেয়েছি। এ বিষয়ে উপাচার্য স্যারের সঙ্গে কথা বলবো।

আইনের ব্যত্যয় করে হালকা গাড়ি চালককে কেন ভারী গাড়ি চালাতে বাধ্য করা হচ্ছে জানতে পরিবহন প্রশাসক ড. স্বপন চন্দ্র মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি অসুস্থ, এ বিষয়ে পরিবহন পুলের কর্মকর্তা জাহিদের সঙ্গে কথা বল।

পরিবহন পুলের কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমি শুনেছি একজন চালক ভারী গাড়িতে চালাতে অপারগতা জানিয়ে চিঠি দিয়েছে। এ বিষয়ে পরিবহন প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে দেখব।

মানবকণ্ঠ/এমআই


poisha bazar