রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ১৪ জুন


poisha bazar

  • মানবকণ্ঠ প্রতিনিধি
  • ০১ মার্চ ২০২১, ১৬:৩৮,  আপডেট: ০১ মার্চ ২০২১, ১৬:৪০

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) স্নাতক প্রথম বর্ষের (২০২০-২১ সেশন) ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ১৪ ই জুন।

সোমবার (০১ মার্চ) সকালে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনের কনফারেন্স রুমে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম. আবদুস সোবহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভর্তি পরিক্ষা বিষয়ক উপ-কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় উপস্থিত বিশ্ববিদ্যালয় কলা অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. ফজলুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আগামী ১৪ জুন 'সি' ইউনিটের পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। এরপর ১৫ জুন 'এ' ইউনিট এবং সর্বশেষ ১৬ জুন 'বি' ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হবে। প্রতিটি পরীক্ষা তিনটি শিফটে হবে। তিন দিনেই ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে।

এর আগে ভর্তি পরীক্ষায় বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় জনসংযোগ প্রশাসক অধ্যাপক আজিজুর রহমান জানান, ভর্তি পরীক্ষার জন্য অনলাইনে প্রাথমিক আবেদন ৭ মার্চ দুপুর ১২টা থেকে ১৮ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত গ্রহণ করা হবে। প্রাথমিক আবেদন বাছাই শেষে ২৩ মার্চ বেলা ১২টা থেকে ৩১ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত চূড়ান্ত আবেদন শেষ হবে। এতে প্রতি ইউনিটে ৪৫ হাজার ভর্তিচ্ছুর পরীক্ষার সুযোগ দেয়া হয়। এবং অতীতে লিখিত পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেয়া হলেও এ বছর শুধু বহুনির্বাচনী প্রশ্ন পদ্ধতিতে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি বলেন, এবার ৮০ টি এমসিকিউ প্রশ্নে ১ ঘন্টায় ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। ৫টি ভুলের ১ মার্ক কাটা যাবে। এবং দ্বিতীয় বার ভর্তির সুযোগ থাকছে না। এবার প্রাথমিক আবেদন ফি ৫৫ টাকা ও চূড়ান্ত আবেদন ফি আগের তুলনায় কমিয়ে ১১ শত টাকা টাকা করা হয়েছে।

আবেদনের যোগ্যতার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় ‘এ’ ইউনিটে (মানবিক শাখা) এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয়সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩ সহ মোট জিপিএ ৭ থাকতে হবে। ‘বি’ ইউনিটে (বাণিজ্য শাখা) চতুর্থ বিষয়সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ সহ মোট জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে এবং ‘সি’ ইউনিটে (বিজ্ঞান শাখা) চতুর্থ বিষয়সহ ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০ সহ মোট জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে। তবে, জিপিএ এর উপরে আলাদা করে নাম্বার থাকছে না। এবং বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ থাকছে।
অধ্যাপক আজিজুর বলেন, এবার ভর্তি পরীক্ষায় মোট আসন সংখ্যা ৪১৯১ টি। তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা হবে। ‘এ’ (কলা, আইন, সমাজ বিজ্ঞান, চারুকলা অনুষদ ও শিক্ষা গবেষণা ইনস্টিটিউট) ইউনিটে আসন সংখ্যা ২০১৯ টি।

‘বি’ (ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট) ইউনিটে ৫৬০ টি। ‘সি’ (কৃষি ও বিজ্ঞান অনুষদ) ইউনিটে ১৬১২ টি।

মানবকণ্ঠ/এমএ






ads
ads