'স্বাধীনতা বিরোধীদের কাছে সংগঠন ইজারা দিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন'

'স্বাধীনতা বিরোধীদের কাছে সংগঠন ইজারা দিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন'
- ফাইল ছবি

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:১৫

ছাত্র ইউনিয়নের বর্তমান নেতৃত্বের সমালোচনা করে এক বিবৃতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ বলেছে, অতীতে গৌরবান্বিত ভূমিকা পালন করা ছাত্র ইউনিয়নের বর্তমান নেতৃত্ব স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির কাছে নিজেদের সংগঠনকে ইজারা দিয়েছে।

সোমবার রাতে ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম পান্থ স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদ লিপিতে এ দাবি করা হয়েছে।

রোববার ধর্ষণবিরোধী এক সমাবেশে ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস বলেছেন, স্বাধীনতাবিরোধী ছাড়া অন্য কোনো নারী যদি নির্যাতনের শিকার হয় তা প্রতিহত করব। এ বক্তব্যের প্রতিবাদে সোমবার সকালে ছাত্র ইউনিয়নের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা 'সনজিত ধর্ষণ-নারী নিপীড়নকে বৈধতা দিয়েছেন' উল্লেখ করে তাকে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে দেখতে চায় না মর্মে বিবৃতি দিয়েছে। ছাত্র ইউনিয়নের এমন বিবৃতির জবাবে কয়েক ঘণ্টা পর ছাত্রলীগ পাল্টাবিবৃতি দিয়েছে।

ছাত্রলীগের বিবৃতিতে বলা হয়, স্বাধীনতা সংগ্রামে গৌরবান্বিত ভূমিকা পালন করা ছাত্র ইউনিয়ন যে বর্তমানে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির মুখপত্রে পরিণত হয়েছে তা প্রমাণ হয় একাত্তরের মহান স্বাধীনতার সংগ্রাম, ২৬ মার্চের স্বাধীনতার ঘোষণা, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের মিথ্যাচারকে ‘রাষ্ট্রীয় বিতর্কিত বিষয়’ বলে উল্লেখ করার মাধ্যমে। সাম্প্রতিক যৌথ বিবৃতি সেই ধারাবাহিকতারই আরেক ধাপ পতন বলে আমরা মনে করি।

ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের একটি বক্তব্যকে হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে কুরুচিপূর্ণ ও উদ্দেশ্যমূলকভাবে রং মাখিয়ে বিভ্রান্তিকর যে প্রচারণা বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের নামে প্রচারিত হয়েছে, তা ছাত্র ইউনিয়নের গৌরবজনক ঐতিহাসিকতার হতাশাজনক পরিণতি বলে আমরা মনে করি। আমরা উদ্বেগের সঙ্গে আরও মনে করি, সাম্প্রদায়িক-প্রতিক্রিয়াশীল, স্বাধীনতা বিরোধী গোষ্ঠীর কাছে ছাত্র ইউনিয়নের বর্তমান নেতৃত্ব তাদের সংগঠনকে যেভাবে লজ্জাজনকভাবে ইজারা ও দখলদারিত্ব প্রদান করেছে সাম্প্রতিক যৌথ বিবৃতি তারই প্রমাণ বহন করে।

ছাত্রলীগের প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, নেতৃত্বের দুর্বলতা কাটিয়ে প্রগতিশীল রাজনৈতিক কৌশল বিনির্মাণের মাধ্যমে, সংগঠন থেকে বিভিন্ন অপশক্তি উৎখাত করে ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ তাদের পূর্বের ঐতিহাসিক ধারায় প্রত্যাবর্তন করবে, সেই সুদিনের প্রত্যাশা রইল।

মানবকণ্ঠ/আরএস





ads