প্রেম প্রত্যাখ্যান, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রেম প্রত্যাখ্যান, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা - সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০১:২৫,  আপডেট: ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০১:৩১

 

প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যাকারী শিক্ষার্থীর নাম নুসরাত জাহান নাভানা (২৪)। তিনি মাস্টারপাড়ার মৃত আবদুল হান্নান মুন্সির মেয়ে ছিলেন। ওই ছাত্রীর পরিবারের দাবি, প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে মেয়েটি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বৃহস্পতিবার সকালে চুয়াডাঙ্গা শহরের মাস্টারপাড়ার একটি বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে নুসরাতের চাচা মো. ফজলে রাব্বী বাদী হয়ে শহরের হকপাড়ার বাসিন্দা সালমান সাহেদ তন্ময়কে (২৮) আসামি করে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা নেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দিন।

নুসরাতের চাচা ফজলে রাব্বী বলেন, বুধবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে নুসরাত তার কক্ষে ঘুমাতে যান। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বাসার কাজের মেয়ে বিলকিস দরজা খুলে দেখেন গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় নুসরাত ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছেন। বিলকিসের চিৎকারে বাড়ি ও আশপাশের লোকজন ছুটে এসে নুসরাতের লাশ নামান। এরপর চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে সন্ধ্যায় তার লাশ দাফন করা হয়।

অভিযুক্ত সালমান বলেন, তাদের দুজনের মধ্যে চমৎকার বোঝাপড়া ছিল। তবে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ ঠিক নয়।

মানবকণ্ঠ /এমএইচ





ads






Loading...