খুবিতে শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস

খুবি প্রতিনিধি

খুবিতে শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস
খুবিতে শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস - সংগৃহীত

poisha bazar

  • প্রতিনিধি, দৈনিক মানবকণ্ঠ
  • ২২ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:০৫

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের উত্থাপিত সকল সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বিষয়ক পরিচালক মোঃ শরীফ হাসান লিমন শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে এ ঘোষণা দেন।

এর আগে, গত ১৪ই নভেম্বর শিক্ষার্থীরা ছাত্র বিষয়ক পরিচালকের মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য উপাচার্যের নিকট স্মারকলিপি দেয়। পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী গতকাল দুপুরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ছাত্র বিষয়ক পরিচালকের দপ্তর আবেদনকারী শিক্ষার্থীদের কাছে স্মারকলিপির বিষয়গুলোর জবাব দেয়।

শিক্ষার্থীদের অনুলিপির প্রেক্ষিতে মেডিকেল সেন্টারে সার্বক্ষণিক চিকিৎসক রাখা, অব্যবহৃত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সচল এবং প্রয়োজনীয় নতুন যন্ত্রাংশ কেনার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া লাইব্রেরি ব্যাবহারের সময় বৃদ্ধি করে ৭ টা থেকে ৮.৩০ করা এবং প্রয়োজনীয় একাডেমিক বইয়ের সংখ্যা বৃদ্ধিতে সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিন প্রধানদের তালিকা জমা দিতে বলা হয়েছে। লাইব্রেরির কার্যদিবস একদিন বাড়িয়ে পাঁচদিন থেকে ছয়দিন করা হয়েছে।

পরিবহন সংকট নিরসনে চলতি মাসে ২ টি বাস যুক্ত করা হয়েছে এবং আগামী মাসে আরো দুটি বাস যুক্ত করা হবে পরিবহন পুলে । হলের অভ্যন্তরীণ সমস্যা সমাধানের লক্ষে হল প্রশাসনকে নির্দেশনা প্রদান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইটি হলের বর্ধিতাংশের নির্মাণ কাজ ফেব্রুয়ারির মধ্যে শেষ করার আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। গতকাল এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে চতুর্থ একাডেমিক ভবন, টিএসসি, জিমনেশিয়াম সম্প্রসারণ, মেডিকেল সেন্টার ও আইআর ভবনের টেন্ডার আহবানের কথা জানানো হয় এবং আগামীতে নতুন প্রকল্পের মধ্যে দুইটি হল, ক্যাম্পাসের জমি সম্প্রসারণে নতুন জমি অধিগ্রহণ, ফিল্ড ল্যাব, গবেষণা কাজের উন্নয়ন সুন্দরবন ইন্সটিটিউট নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণের কথা জানানো হয়।

শিক্ষার্থীরা কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বেতনের পরিসংখ্যান তুলে ধরলে ছাত্র বিষয়ক পরিচালক বলেন, সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বেতন ফির তালিকা সংগ্রহের কাজ চলছে, যদি কোনো অসামঞ্জস্যতা পাওয়া যায় তাহলে অবশ্যই সমাধান করা হবে।

এ বিষয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মতামত জানতে চাইলে তারা বলেন কয়েকটি বিষয়ের সমাধান হয়েছে। তবে প্রশাসনের তরফ থেকে শুধুমাত্র আশ্বাস পেয়েই আমরা সন্তুষ্ট নই, আমরা চাই দ্রুততম সময়ে সকল সমস্যার সমাধান।

এসময় ছাত্রবিষয়ক নানা ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের অবহিতকরণ ও অন্তর্ভুক্তকরণের জন্য তাদের সাথে মাসিক, ত্রৈমাসিক এবং ষাণ্মাসিক ভিত্তিতে আলোচনার প্রস্তাব এবং প্রাপ্তির সুবিধার্থে ছাত্র বিষয়ক পরিচালকের দপ্তরে তথ্য সেল খোলার ঘোষণা দেন ছাত্র বিষয়ক পরিচালক।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads





Loading...