ঢাবি কমিটি ভেঙে দিচ্ছে ছাত্রদল, শিগগিরই কাউন্সিল

ঢাবি কমিটি ভেঙে দিচ্ছে ছাত্রদল, শিগগিরই কাউন্সিল
ঢাবি কমিটি ভেঙে দিচ্ছে ছাত্রদল, শিগগিরই কাউন্সিল - ফাইল ছবি

poisha bazar

  • তানভীর হাসান
  • ২২ অক্টোবর ২০১৯, ২০:২৬

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণার একমাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি গঠনে কার্যকর কোন উদ্যোগ নেয়নি সংগঠনটি। দীর্ঘ ৪ বছরের পুরানো কমিটি দিয়ে অনেকটা খুড়িয়ে চলছে সংগঠনটি। এই অবস্থায় নতুন নেতৃত্ব খুঁজতে গিয়ে বিপাকে পড়েছে দলীয় হাইকমান্ড। তবে শীর্ষ নেতারা বলছেন, শিগগিরই হবে কাউন্সিল আসছে নতুন নেতৃত্ব।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১৪ সালে ১৪ অক্টোবর রাজিব আহসানকে সভাপতি ও আকরাম হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় আংশিক কমিটি ঘোষণা করেন বিএনপির তৎকালীন ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি। এর দুই বছরপর ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া আল মেহেদি তালুকদারকে সভাপতি ও বাশার সিদ্দিককে সাধারণ সম্পাদক করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের আংশিক কমিটি ঘোষণা করেন। তার প্রায় ১ বছর পর পূর্ণাঙ্গ করা হয় এই কমিটি।

পাঁচ বছর পর চলতি বছরের সেপ্টেম্বর ১৮ তারিখে সারাদেশের কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করা হয়। এতে ফজলুর রহমান বাবু ও ইকবাল হোসেন শ্যামল সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তবে ১ মাস অতিবাহিত হলেও বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি দিতে পারেনি নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি।

শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ এখনই হচ্ছে না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি দেয়া হবে শিগগিরই। তবে যোগ্য নেতৃত্ব না পাওয়ায় দেওয়া হবে আহবায়ক কমিটি । পরবর্তীতে কাউন্সিলের মাধ্যমেই প‚র্ণাঙ্গ কমিটি হবে। জানা গেছে, আহবায়ক কমিটি গঠনের কার্যক্রম শুরু হলেও বাড়বার ছাত্রলীগের হামলার কারণে সেটিও ধীর গতিতে চলছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঢাবি ছাত্রদলের একজন সহ-সভাপতি মানবকণ্ঠকে বলেন, দীর্ঘদিনেও কমিটি গঠন না হওয়ায় অনেকেই ক্ষুব্ধ। দলের জন্য দীর্ঘ সময় দিলেও পদ পাওয়া যাচ্ছে না। নিয়মিত কাউন্সিল হলে এ সংকট কাটানোও সম্ভব। আগামী ডাকসু নির্বাচনকে সামনে রেখেই নতুন কমিটি করা উচিত বলেও মত দেন এই নেতা।

এ বিষয়ে কথা বলতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সভাপতি ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক দুজনকেই ফোনে পাওয়া যায়নি। তবে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল মানবকণ্ঠকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি গঠনের জন্য ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছি। তবে ছাত্রলীগের বারবার হামলার কারণে কমিটি গঠনের কাজ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। আমরা খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ে আহবায়ক কমিটি করব। তারপর সম্মেলনের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হবে।

নতুন কমিটির নেতৃত্ব নিয়ে কোনো সংকট নেই দাবি করে তিনি বলেন, পুরানো হলেও তারা যথেষ্ট ভালো কাজ করছে। আগামী কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে সৎ , যোগ্য ও তরুণদেরই প্রাধান্য দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মানবকণ্ঠ/এআইএস




Loading...
ads





Loading...