৩২০ কোটি টাকার বীমাদাবী পরিশোধ করল ডেল্টা লাইফ

ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী লিমিটেড
৩২০ কোটি টাকার বীমাদাবী পরিশোধ ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের। - সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৫৭,  আপডেট: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:২৪

২০১৯ এর জানুয়ারি থেকে জুন অবধি গ্রাহকদের ৩২০ কোটি টাকার অধিক বীমাদাবী পরিশোধ করল দেশের শীর্ষস্থানীয় জীবন বীমা প্রতিষ্ঠান ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী লিমিটেড। এ সময়ে মোট ৩১,২৮২ জন বীমাগ্রহীতাকে মেয়াদপূর্তিতে বীমা দাবী পরিশোধ, ১৩০৪ জন বীমাগ্রহীতার পরিবারকে মৃত্যুদাবী পরিশোধ এবং ১২,১৮৩ জন বীমাগ্রহীতার স্বাস্থ্যসেবা খরচ পরিশোধ করা হয়।

মোট ৩২০ কোটি টাকার বীমাদাবী অর্থ পরিশোধের মাঝে মোট ৩১,২৮২ জনকে মেয়াদপূর্তিতে ১৫১ কোটি, মোট ১৩০৪ পরিবারকে মৃত্যুদাবী পরিশোধের অংশ হিসেবে ৫.৯২ কোটি টাকা পরিশোধ করা হয়। এ ছাড়াও এই ছয়মাসে মোট ১২,১৮৩ জন বীমা গ্রহীতার চিকিৎসা খরচ হিসেবে মোট ১৪.৯২ কোটি টাকা পরিশোধ করে ডেল্টা লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী লিমিটেড।

এ প্রসঙ্গে ডেল্টা লাইফ-এর মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা আদিবা রহমান বলেন, “ডেল্টা লাইফের রয়েছে ৩,৮৭৮ কোটি টাকার শক্তিশালী লাইফ ফান্ড যা প্রতিষ্ঠানের বীমাদাবী পরিশোধে সক্ষমতারই পরিচায়ক। ডেল্টা লাইফ সবসময়ই যেকোনো দাবী পরিশোধে এবং গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব প্রদান করে থাকে।”

উল্লেখ্য, ডেল্টা লাইফ -এর মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা আদিবা রহমান এ বছর ‘ওমেন ইন ইনসিওরেন্স লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন।

সম্প্রতি ভারতীয় চেম্বার অফ কমার্স আয়োজিত ‘ইমার্জিং এশিয়া অ্যাওয়ার্ড’-এ ‘বেস্ট লাইফ ইনসিওরেন্স কোম্পানী’ হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে ডেল্টা লাইফ। বীমাগ্রহীতাদের সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করতে ডেল্টা লাইফ সর্বদাই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। বর্তমানে প্রায় ১৫ লক্ষ গ্রাহককে ২০,০০০-এর অধিক এজেন্টের মাধ্যমে নিয়মিত সেবা দিয়ে চলেছে ডেল্টা লাইফ। সময়মতো বীমাদাবী পরিশোধে প্রতিষ্ঠানটি সবসময়ই সচেষ্ট । বিগত বেশ কয়েকবছর ধরেই প্রতিষ্ঠানটি নিয়মিত ৫০০ কোটি টাকারও অধিক পরিমাণে বীমাদাবী পরিশোধ করে আসছে।

বাংলাদেশে বর্তমানে মোট ৭৮টি বীমা কোম্পানি বীমা সেবা দিচ্ছে যার মধ্যে ৩২টি লাইফ বীমাকারী কোম্পানি এবং ৪৬টি নন-লাইফ বীমাকারী কোম্পানি।[১] লাইফ বীমাকারী কোম্পানির মধ্যে ১টি সরকারী এবং ৩১টি বেসরকারি মালিকানাধীন। অন্যদিকে নন-লাইফ বীমাকারী কোম্পানির মধ্যে ১টি সরকারী এবং ৪৫টি বেসরকারি মালিকানাধীন।

জীবন বীমা কর্পোরেশন (জেবিসি) ও সাধারণ বীমা কর্পোরেশন বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ব বীমা প্রতিষ্ঠান যা ৯৭৩ সালের ১৪ মে বীমা কর্পোরেশন আইন ১৯৭৩ এর অধীনে গঠিত হয়। ১৯৮৬ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে ডেল্টা লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি। এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ছিলেন প্রয়াত সাফাত আহমেদ চৌধূরী। ১৯৮০ সালে বেসরকারি বীমা ব্যবসা অনুমোদন সাপেক্ষে প্রতিষ্ঠানটি কার্যক্রম শুরু করে।

মানবকণ্ঠ/আরএ




Loading...
ads





Loading...