কে এই রনিল বিক্রমাসিংহে


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৩ মে ২০২২, ১০:২৯

শ্রীলঙ্কার একজন অভিজ্ঞ রাজনীতিবিদ হিসেবে খ্যাতি রয়েছে রনিল বিক্রমাসিংহের। তিনি ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির শীর্ষ নেতা। এর আগে বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বও পালন করেন রনিল।

১৯৪৯ সালের ২৪ মার্চ রাজনৈতিক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন রনিল বিক্রমাসিংহে। আইন বিষয়ে পড়াশোনা করা রনিলের রাজনৈতিক জীবন শুরু হয় সত্তরের দশকে। যোগ দেন শ্রীলঙ্কার পুরনো রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টি বা ইউএনপিতে।

১৯৭৭ সালে প্রথমবারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েই সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে যুব মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিয়ে আলোচনায় আসেন রনিল। এরপর শুধু সামনে এগিয়ে যাওয়া। পরবর্তীতে দায়িত্ব পালন করেন শিল্প, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী হিসেবে।

১৯৯৩ সালে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। ১৯৯৪ সাল থেকেই ইউএনপির প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন তিনি।

এরপর ২০০১ থেকে ২০০৪ এবং ২০১৫ থেকে ২০১৮ সালের শুরু পর্যন্ত আবারও দেশটির প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রনিল। তবে দু'বারই পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ায় পূর্ণ মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করতে পারেননি তিনি। ২০১৮ সালে তাকে পদ থেকে সরিয়ে মাহিন্দা রাজাপাকসেকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। এরপর দেশটিতে শুরু হয় অস্থিরতা। তবে একই বছর আবারও তাকে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হলে সংকট দূর হয়।

২০১৯ সালের নির্বাচনের পর পদত্যাগ করেন রনিল। এরপর ২০২০ সালের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও জয়ী হতে পারেননি তিনি। তবে, সংসদ সদস্য হিসেবেই পার্লামেন্টে যান রনিল।

পুনরায় রনিল বিক্রমাসিংহে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় দেশের চলমান সংকট উত্তরণ হয় কি না, সেটাই এখন দেখার বিষয়।


poisha bazar


ads