মিয়ানমারে দুই বিমান ঘাঁটিতে হামলা

- প্রতীকী ছবি

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৯ এপ্রিল ২০২১, ১৪:০০

মিয়ানমারের দুই বিমান ঘাঁটিতে সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে। গণমাধ্যম ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, বিমান ঘাঁটির একটিতে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে ও অপর ঘাঁটিতে রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) ভোররাতে দেশটির মধ্যাঞ্চলীয় শহর মাগওয়ের নিকটবর্তী বিমান ঘাঁটিতে প্রথম হামলার ঘটনাটি ঘটে বলে বার্তা সংস্থা ডেল্টার ফেইসবুক পোস্টের প্রতিবেদনের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এ সময় এই ঘাঁটিটিতে তিনটি বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

এর কিছুক্ষণ পর মাগওয়ের উত্তরপূর্বে দেশটির প্রধান বিমান ঘাঁটিগুলোর অন্যতম মেইকতিলায় পাঁচটি রকেট ছোড়া হয় বলে ঘটনার সময় কাছাকাছি থাকা সাংবাদিক থান উয়িন হ্লাইং এক পোস্টে জানিয়েছেন।

তিনি একটি ভিডিও ক্লিপও পোস্ট করেছেন। এতে মাথার ওপর দিয়ে রকেট উড়ে যাওয়ার মতো আওয়াজ ও এরপর বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। তবে ক্লিপটির সত্যতা যাচাই করতে পারেনি রয়টার্স।

১ ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুত্থানের পর মিয়ানমারে তিন মাস ধরে চলা অস্থিরতার মধ্যে এসব হামলার খবর এল। কোনো পক্ষ হামলার দায় স্বীকার করেনি এবং হতাহতের নিশ্চিত কোনো তথ্যও পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে মন্তব্য জানার জন্য দেশটির সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্রকে ফোন করা হলেও তিনি জবাব দেননি বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

সামরিক বাহিনী নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর থেকেই গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভকারীরা মিয়ানমারের ছোট-বড় শহরগুলো কাঁপিয়ে দিচ্ছে। তাদের দমনে সামরিক বাহিনী প্রাণঘাতী শক্তি ব্যবহার করছে। এতে এ পর্যন্ত ৭৫০ জনেরও বেশি লোক নিহত হয়েছেন বলে দেশটির মানবাধিকার আন্দোলনকারী একটি গোষ্ঠী জানিয়েছে।

মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকারকে পতন ঘটিয়ে সু চিসহ দেশটির শীর্ষ নেতাদের আটক করে সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে দেশটির সীমান্ত অঞ্চলগুলোতে সামরিক বাহিনীর সঙ্গে সংখ্যালঘু জাতিগুলোর বিদ্রোহীদের লড়াই ফের উস্কে উঠেছে। দেশটির উত্তর ও পূর্বাঞ্চলে বিদ্রোহী অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে অসংখ্য বিমান হামলা চালিয়েছে দেশটির সামরিক বাহিনী।

মানবকণ্ঠ/এমএ


poisha bazar

ads
ads