মিয়ানমারে জাতীয় ঐক্যের সরকার গঠন


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৬ এপ্রিল ২০২১, ২০:৩৭

মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক উপায়ে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে সামরিক শাসন জারি করায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে প্রতিদিনই বিক্ষোভ কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে দেশটির নানান শ্রেণী পেশার মানুষ। জান্তাদের শোষন ও অমানবিক অত্যাচারও গণতন্ত্রকামীদের আন্দোলনকে প্রতিহত করতে পারছে না।

এরই মধ্যে মিয়ানমারে চলমান সামরিক জান্তাবিরোধী আন্দোলনে শরিক রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা জাতীয় ঐক্যের সরকার গঠন করেছেন। দেশটির সদ্য ক্ষমতাচ্যুত পার্লামেন্ট সদস্য, অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভের নেতা ও জাতিগত সংখ্যালঘুদের উক্ত সরকারে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

জাতীয় ঐক্যের এ সরকারে মিয়ানমারের 'ভারপ্রাপ্ত ভাইস প্রেসিডেন্ট' মান উইন খাইং থানকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, জাতীয় ঐক্যের সরকারের ঘোষণা দিয়ে দেশটির কিংবদন্তি গণতান্ত্রিক কর্মী মিন কো নাইং ১০ মিনিটের এক ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘ জনগণের আকাঙ্ক্ষা ছিল জাতীয় ঐক্যের সরকারের। আপনারা দয়া করে জনগণের সরকারকে স্বাগত জানান। প্রাথমিকভাবে এই সরকারের কয়েকটি পদ নির্ধারিত হয়েছে। আমরা সামরিক শাসনের মূলোৎপাটন করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করছি,
আর এর জন্য আমাদের অনেক আত্মত্যাগ করতে হবে।’

তিনি জানান, এই ঐক্যের সরকারের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হবে আন্তর্জাতিক সমর্থন আদায়। তবে এ নিয়ে জান্তা সরকারের কাছ থেকে এখনো কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানায়, ক্ষমতাচ্যুত সংসদ কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত জাতিসংঘে মিয়ানমারের আইনপ্রণেতাদের দূত ড. সাশা বলেছেন, মিয়ানমারের ইতিহাসে এই প্রথম জাতীয় ঐক্যের সরকার গঠিত হলো। যা এর আগে কখনোই দেশটিতে এভাবে সরকার গঠন হয়নি।

মানবকণ্ঠ/এমএ


poisha bazar

ads
ads