মিয়ানমারে দুইদিনে আরও ৮২ হত্যা, মৃত্যু বেড়ে ৭ শতাধিক


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ এপ্রিল ২০২১, ১১:২০,  আপডেট: ১১ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৩

মিয়ানমারে সামরিক সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর গণতন্ত্রের জন্য বিক্ষোভকারীদের ওপর নির্বিচারে গুলি এবং অভিযান চালিয়ে ৭ শতাধিক মানুষকে হত্যা করেছে জান্তা সরকার। সর্বশেষ শুক্র এবং শনিবার অন্তত আরও ৮২ জনকে হত্যা করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী।

গত দুই দিনের মৃত্যু সম্পর্কে চ্যারিটি ফর পলিটিকাল প্রিজনারস- এর একটি দৈনিক প্রতিবেদনের বরাতে আনাদুলু এজেন্সির খবরে বলা হয়েছে, বাগো অঞ্চলে শুক্রবার ৮২ জনকে হত্যা করেছে নিরাপত্তাবাহিনী। নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে বিভিন্ন স্থানে সাধারণ মানুষের সংঘর্ষে নতুন এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ১২ জনকে কারাবন্দী করা হয়েছে। এছাড়া ৬৫৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। যারা সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন।

গত নভেম্বরের নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ১লা ফেব্রুয়ারি ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এসময় প্রেসিডেন্ট উইন্ট মিন্ট ও ক্ষমতাসীন দল এনএলডি নেত্রী অং সাং সু চিসহ শীর্ষ রাজনীতিবিদদের গ্রেপ্তার করা হয়।

দেশটিতে এক বছরের জরুরি অবস্থা জারি করেছে সামরিক জান্তা। তারা দুই বছরের মধ্যে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তবে সাধারণ মানুষ সামরিক সরকারের প্রতিশ্রুতি ও হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছে। সেখানেই পাখির মতো গুলি ছুড়ছে নিরাপত্তাবাহিনী।

মানবকণ্ঠ/এনএস






ads
ads