গার্ডদের পায়ের আওয়াজ শুনলেই মনে হতো মেরে ফেলবে: উইঘুর নারী


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:১৩

উইঘুর মূসলিমদের জন্য বানানো ডিটেনশন ক্যাম্পে তিন বছর ধরে নির্যাতন সহ্য করেছেন গুলবাহার হাইতিওয়াজি। ২০১৯ সালে তিনি সেই ক্যাম্প থেকে ছাড়া পান। সম্প্রতি নিজের লেখা একটি বইয়ে সেই অত্যাচারের কথা তুলে ধরেছেন হাইতিওয়াজি।

ফ্রান্সে বাস করা গুলবাহার হাইতাওয়াজি তার লেখ সার্ভাইবার অব দ্য চাইনিজ গুলাগ বইয়ে লেখেন, ক্যাম্পে জীবন এবং মৃত্যু একই ব্যাপার। এক সকালে একজন গার্ড আসলো এবং আমাকে কোনো কিছু বলা ছাড়াই বিছানার সঙ্গে বেঁধে রাখলো।

এরপর থেকে দুই সপ্তাহ আমি ধুলার সামনে ঐ লোহার বিছানার সঙ্গে বাঁধা অবস্থায় বসে ছিলাম। আমাদের ঘুম, জাগা, খাওয়া সব কিছুই হতো গার্ডদের চিৎকার শুনে। যখনই গার্ডদের হাঁটার আওয়াজ পেতাম মনে হতো তারা আমার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য আসছে।

গত ১৪ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, চীন সরকার জিনজিয়াং প্রদেশ বাস করা উইঘুরদের ডিটেনশন ক্যাম্পে গণহত্যার পাশাপাশি মানবতাবিরোধী অপরাধ চালাচ্ছে।, তবে এই অভিযোগ সবসময় অস্বীকার করে আসছে চীন।






ads
ads