করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ২১ হাজার ছাড়াল, আক্রান্ত বেড়ে ৩ কোটি ৪২ লাখ

করোনায় মৃত্যু ১০ লাখ ২১ হাজার ছাড়াল

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ০২ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩০

প্রাণঘাতী করোনায় বিশ্বে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০ লাখ ২১ হাজার ছাড়িয়েছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ কোটি ৪২ লাখ।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, আজ শুক্রবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৪২ লাখ ৬৬২ জনে। মারা গেছে ১০ লাখ ২১ হাজার ৭০৯ জন। সুস্থ হয়েছে ২ কোটি ৩৭ লাখ ৬৯ হাজার ৭২৫ জন।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি যুক্তরাষ্ট্রে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৭২ লাখ ৭৭ হাজার ৫৯১ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭ হাজার ৭৯১ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে থাকলেও মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৪৮ লাখ ৪৭ হাজার ৯২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৪৪ হাজার ৬৮০ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে তৃতীয় স্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৩ লাখ ১২ হাজার ৫৮৪ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৯৮ হাজার ৬৭৮ জনের।

মৃত্যু বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেশী মেক্সিকো চতুর্থ স্থানে থাকলেও আক্রান্ত বিবেচনায় দেশটির অবস্থান ৯ নম্বরে। মেক্সিকোতে শুক্রবার সকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৭ লাখ ৭৮ হাজার ৭৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৭৬ হাজার ৪৩০ জনের।

ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য মৃত্যু বিবেচনায় রয়েছে পঞ্চম স্থানে, তবে আক্রান্তের দিক থেকে দেশটির অবস্থান ১৩তম। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৬২ হাজার ৭৭৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪২ হাজার ২৯২ জনের।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৫০৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে আরও ২১ জনের। সবমিলিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত দেশে ৩ লাখ ৬৪ হাজার ৯৮৭ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মোট মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ২৭২ জনের। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লাখ ৭৭ হাজার ৭৮ জন।

এদিকে প্রাণঘাতী করোনার টিকা এলেই দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফেরা যাবে এমন নয়। লন্ডনের রয়্যাল সোসাইটির গবেষকেরা জানিয়েছেন, টিকা নিয়ে আরও বাস্তববাদী হওয়া দরকার।

লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের অধ্যাপক নিলয় শাহ বলেন, করোনার টিকা সহজলভ্য হয়ে গেলে, আগামী মার্চেই স্বাভাবিক জীবন ফিরে আসবে এমন নয়। তাই করোনাভাইরাসে জারি থাকা কড়াকড়ি ধীরে ধীরেই শিথিল করতে হতে পারে বলে মত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে করোনা সুরক্ষায় বিশ্বজুড়ে ২শ’রও বেশি টিকা তৈরির কাজ চলছে। তবে কেউই চূড়ান্ত নিরাপত্তার পরীক্ষা শেষ করতে পারেনি। সবাই টিকা পরীক্ষার নানা ধাপে থাকায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখনও কারও টিকা ব্যবহারের চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়নি। মহামারী অবসানে টিকা আশার আলো জাগালেও সেটি তৈরির ক্ষেত্রে অনেকবার ব্যর্থতা আসতে পারে সেটি সবারই জানা। আর তা সহজলভ্য হতেও লেগে যেতে পারে একবছর।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, টিকাদান প্রক্রিয়া শুরু হলেও সে প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে কয়েক মাস, এমনকী একবছরেরও বেশি সময় লেগে যেতে পারে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে






ads