চীনা ভ্যাকসিন বাজারে আসছে বছরের শেষে


poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১৯ আগস্ট ২০২০, ১০:৪৭

চীনা একটি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ঘোষণা দিয়ে এ বছরের শেষের দিকে তারা বাজারে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ভ্যাকসিন আনতে পারবে। কোম্পানি প্রধানের বরাতে এ সংবাদ জানিয়েছে মার্কিন বার্তা সংস্থা এপি।

ভ্যাকসিন বাজারে আনার বিষয়ে সিনোফর্মের চেয়ারম্যান জানান, তাদের ভ্যাকসিন সংযুক্ত আরব আমিরাতের মানবদেহে বর্তমানে তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিকাল ট্রায়ালে রয়েছে। ডিসেম্বরের শেষ দিকে আমাদের ভ্যাকসিন বাজারে আনতে পারবো।

তিনি আরো জানান, ভ্যাকসিনের দুই ডোজ এরই মধ্যে তিনি গ্রহণ করেছেন। এখন পর্যন্ত তার শরীরে কোনো ধরণের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়নি।

এপির প্রতিবেদন অনুযায়ী, বছরের শেষদিকে বাণিজ্যিক বিক্রির উদ্দেশে ভ্যাকসিনটি বাজারে ছাড়া হবে জানিয়ে সিনোফার্মার চেয়ারম্যান লিউ জিংজেন দেশটির একটি দৈনিককে বলেছেন, এর দাম হবে এক হাজার ইয়েন বা ১৪০ মার্কিন ডলালের কম। ২৮ দিনের ব্যবধানে দুটি ধাপে ভ্যাকসিনটি দেয়া হবে।

এদিকে বুধবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ২৩ লাখ ৫ হাজার ২০৫ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭ লাখ ৮৪ হাজার ৩২৮ জন। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক কোটি ৫০ লাখ ৪৫ হাজার ৬৬৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৫৩ হাজার ৮৪২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৩১২ জনের। একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৫৫ হাজারের বেশি মানুষ।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটির সবগুলো অঙ্গরাজ্যেই হানা দিয়েছে করোনা। দেশটিতে প্রতিদিনই গড়ে ৫০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের পরেই সংক্রমণে এগিয়ে রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল, ভারত, রাশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, পেরু, মেক্সিকো, কলম্বিয়া, চিলি এবং স্পেন। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের ধারে-কাছে নেই কোনো দেশ। সেখানে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬ লাখ ৫৫ হাজার ৯৭৪ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১ লাখ ৭৫ হাজার ৭৪ জন।

দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৩৪ লাখ ১১ হাজার ৮৭২ জন। দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ১০ হাজার ১৯ জন।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৭ লাখ ৬৬ হাজার ৬২৬। এর মধ্যে মারা গেছেন ৫৩ হাজার ১৪ জন।

চতুর্থ অবস্থানে থাকা রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯ লাখ ৩২ হাজার ৪৯৩ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ১৫ হাজার ৮৭২ জন।

সংক্রমণে ৫ম অবস্থানে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকায় সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আক্রান্ত ও মৃত্যু বাড়ছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৯২ হাজার ১৪৪ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ২৬৪ জনের।

 





ads