বিদেশিদের জন্য ফের চীনের দরজা বন্ধ

মানবকণ্ঠ
বেইজিং বিমানবন্দর - ছবি : সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৮ মার্চ ২০২০, ১১:৪৭,  আপডেট: ২৮ মার্চ ২০২০, ১১:৫৯

চীনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমে আসায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু ও বিদেশিদের প্রবেশ কিছুটা শিথিল হয়েছিল। তবে প্রতিদিনই বিদেশ থেকে আসাদের মধ্যে করোনাভাইরাস শনাক্ত হচ্ছে। তাই নতুন করে সংক্রমণ রোধে বিদেশিদের চীনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটি।

বৈধ ভিসা বা ‘রেসিডেন্স পাস’ থাকলেও কেউ আর চীনে ঢুকতে পারছেন না। এছাড়া আন্তর্জাতিক ফ্লাইটও সীমিত করছে শি জিনপিং সরকার। তবে বিদেশে থাকা চীনা নাগরিকেরা দেশে ঢুকতে পারছেন। কতদিন নতুন কড়াকড়ি জারি থাকবে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি চীন।

স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ৮ এপ্রিল থেকে পুরোদস্তুর খুলতে পারে উহান শহর।

করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত উহান গত ২৩ জানুয়ারি থেকে তালাবন্ধ। খুব জরুরি দরকার ছাড়া রাস্তায় বেরোনো নিষিদ্ধ। দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ ট্রেন, বাস, ফেরি, মেট্রোসহ যাবতীয় গণপরিবহণ। জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, এ দেশে এখনও পর্যন্ত ৮১,৩৪০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মৃতের সংখ্যা ৩,২৯২।

প্রসঙ্গত, বিশ্বজুড়ে এখন করোনাভাইরাস প্রতিরোধের ব্যবস্থা চলছে। গত বছরের শেষ দিন চীনের উহানে প্রথমবারের মতো শনাক্ত হয় এ ভাইরাস। ইতোমধ্যেই বিশ্বের অন্তত ১৯৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এই মহামারি। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন আরও ৩ হাজার ২৭২ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ হাজার ৩৪০ জনে। বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৫ লাখ ৯৬ হাজার ৭২৩ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৬৪ হাজার ৪৮৬ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ১ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৫ জন সুস্থ হয়েছে বাড়ি ফিরেছেন।

বাংলাদেশে প্রাণসংহারী ভাইরাসটি গত ৮ মার্চ শনাক্ত করা হয় বলে। এরপর আরও ৩৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। তাদের মধ্যে ডাক্তার নার্সও আছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৫ জন মারা গেছেন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ জন।

মানবকণ্ঠ/জেএস





ads







Loading...