চীনে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬

চীনে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬
করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসা - সংগৃহীত

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১০:২১,  আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১০:৫০

চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া নতুন প্রকৃতির এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দুই হাজার ছাড়িয়ে গেছে।  ভাইরাসটি এখন পর্যন্ত বিশ্বের ১২টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানকার সবাই বেশ আতঙ্কে রয়েছেন।

রবিবার (২৬ জানুয়ারি) এই তথ্য জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ ।

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ইতিমধ্যে উহানসহ দেশটির ১৪টি শহরে চার কোটি ৭০ লাখ লোক অবরুদ্ধ অবস্থায় রয়েছেন। এদিকে সবশেষ কানাডাও করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে।

চীনের বাইরে কানাডা, ভারত, ফ্রান্স, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, নেপাল, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও তাইওয়ানে গতকাল পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত মানুষ পাওয়া গেছে।

চীনের স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, এই ভাইরাসে আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে ৬৮৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। মৃত ১৫ জনের মধ্যে হুবেই প্রদেশের ১৩ জন। এছাড়া দেশটির সাংহাইয়ে এই ভাইরাসে প্রথম কারো মৃত্যু হয়েছে। শুধু হুবেই প্রদেশেই ৫২ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং শনিবার ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির পলিটব্যুরোর বৈঠকে বলেছেন, দেশ ‘গুরুতর পরিস্থিতির’ মোকাবিলা করছে।

সম্প্রতি চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। প্রতিনিয়ত এই ভাইরাসে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের শরীরে প্রাথমিক লক্ষণ হিসেবে শ্বাসকষ্ট, জ্বর, সর্দি, কাশির মত সমস্যা দেখা দেয়।

২০১৯ সালের আগে এই ভাইরাসটি বিশ্বে কখনো দেখা যায়নি। এ কারণে একে নতুন প্রকৃতির করোনাভাইরাস বা ২০১৯-এনকোভ নামেও পরিচিত। গতকাল যখন চীনে নতুন চান্দ্রবছর উদ্‌যাপন করার কথা, তখন মানুষ লাইন দিচ্ছে ওষুধের দোকানগুলোতে। অথচ এই চান্দ্র নববর্ষ চীনের সবচেয়ে বড় সামাজিক অনুষ্ঠান।

এদিকে হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে গতকাল কোনো যানবাহন বের হতে দেয়নি পুলিশ। এক কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, ‘কেউ বের হতে পারবে না।’ তবে যেসব চিকিৎসা কর্মকর্তা ছুটির কারণে প্রদেশটির বাইরে গিয়েছিলেন, তাদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে।

মানবকণ্ঠ/এসকে





ads







Loading...