একগুচ্ছ কবিতা : কাজী সাইফ

মানবকণ্ঠ
একগুচ্ছ কবিতা - মানবকণ্ঠ।

poisha bazar

  • অনলাইন ডেস্ক
  • ১১ মে ২০২০, ২১:০৯

কাজী সাইফ

পতাকা

সবুজের এই বাংলাদেশে, নয়টি মাসের- আঁধার শেষে
একটি নতুন সূর্য ওঠে, স্বাধীনতার সূর্য ওঠে।
তারই সরল প্রতিচ্ছবি
লাল-সবুজের এই পতাকায় স্বচ্ছ হয়ে ফুটে।।

প্রাণ দিয়েছে লাখো মুক্তি সেনা
এই পতাকা তাদের রক্তে কেনা।
হায়নার দল এই পতাকা কেড়ে নিতে
লাখো মায়ের সম্ভ্রম লুটে।।

যখন সূর্য ওঠে সবুজ বনের ফাঁকে
যেনো পতাকারই মূর্ত ছবি আঁকে।
স্বাধীন দেশে আলোর পিদিম
বছর ভরে আলোর দিয়ে যায় যে ছুটে।।


ইলিশের মা

সাগর জলে ইলিশের মা
সারা বছর বাস করে
ডিম পাড়ার সে সময় হলে
পাড়ি জমায় চাঁদপুরে।

পদ্মা-মেঘনার গভীর জলে
মা ইলিশের আঁতুড়ঘর
বেশ কিছুদিন সেথায় থেকে
ডিম পেড়ে যায় জলের পর।

পদ্মা-মেঘনার জলের স্রোতে
ইলিশ মাছের ছাও ফুটে
বড় হয়ে জাটকা ইলিশ
সমুদ্দুরে দল ছুটে।


উকুন

আজকাল সীমান্ত পেরিয়ে
উদ্ভট কতক উকুন ঢুকেছে
বাঙালি সংস্কৃতির পরিপাটি
চুলের পরতে পরতে।

উদ্বাস্তু পরজীবীরা
আমাদের সংস্কৃতির রক্ত চুষে
ফুলে-ফেঁপে জগদ্দলের মতো
মাথায় চেপে বসতে চলেছে।

সংস্কৃতির মাথায়
ভীনদেশি উকুনের বসতি
আমরা মন থেকে চাই নি।
শুধু চাই....
নিজেদের সংস্কৃতি সুস্থ থাক্
চিরকাল বেঁচে থাক্।

সেই লক্ষ্যে স্বদেশের পক্ষে
মিছিলের মতো দলে দলে
এসো বন্ধুরা
সংস্কৃতির কুন্তলে সূক্ষ্ম চিরুনী চালাই।

তবু যদি মাথা না ছাড়ে
ঘাপটিমারা উকুন
তারপর এসো বন্ধুরা
সঙ্গে একদল বাঁদর এনো
সংস্কৃতির মস্তকে
উকুনের জম বাঁদর চড়াবো !


ইমিগ্রেশন

রাতের ঘুমন্ত পৃথিবী জেগে উঠে নবী সূর্যোদয়ে
সূর্যালোকে তেজদীপ্ত ভাবনার জাল বুনি
নূতন আশার বাণী বয়ে চলি বিশ্বময়ে।

পুরনোদিনের হতাশাগুলো লেপটে থাকে
রাতের অদৃশ্য ওয়ালে
স্বপ্নেরা ঘুর্ণির মত পাকখেয়ে
আটকা পড়ে অন্ধকারের চোয়ালে।

দিন যায় রাত আসে চলে পালাবদল
সময়ের ব্যস্ত মহাসড়ক ধরে
সব আয়োজন পেছনে ফেলে
এগিয়ে চলেছি মৃত্যুর বন্দরে!

আত্মার অতৃপ্ত বাসনা অবৈধ ইচ্ছেসম্পদ বলে
হয়তো রেখে দেবে মৃত্যুর ইমিগ্রেশন
কিছু নেই পাথেয় আমার ওপারের
আছে অনুতপ্ত দিল, নোনাজলে সিক্ত নয়ন।


মানবকণ্ঠ/জেএস




Loading...
ads






Loading...