লেবার পার্টির ব্রিটিশ বাংলাদেশি এমপি রূপা হক বহিষ্কার


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:০৩

বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটেনের লেবার পার্টির এমপি রূপা হককে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। লেবার পার্টির কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে দেশটির অর্থমন্ত্রী কাওয়াসি কাওয়ারতেংকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করায় তাকে বহিষ্কার করা হয়।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) কনফারেন্স ফ্রিঞ্জ ইভেন্টে রূপা অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কাওয়ারতেংকে ‘কৃষ্ণাঙ্গ’ বলে মন্তব্য করেন।

রূপা হক বলেন, ‘তিনি একজন অতিমাত্রায় কালো মানুষ। তাকে না দেখে বোঝার উপায় নেই। তবে তিনি ভালো স্কুল ও দেশের অনেক ভালো বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন। আপনি যদি আজকের প্রোগ্রামে তার কথা শুনতে পান, তবে আপনি বুঝতে পারবেন না যে তিনি কালো।’

এদিকে রূপা হকের এ ধরনের মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর যুক্তরাজ্য জুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

টোরি পার্টির চেয়ার জেক বেরি তার এ মন্তব্যকে বর্ণবাদী এবং ঘৃণ্য বলে অভিহিত করেন। এছাড়া সাবেক অর্থমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ বলেছেন, ক্লিপটি দেখে আমি আতঙ্কিত ও ব্যথিত। যারা বর্ণবাদের মাধ্যমে বিভক্তির সৃষ্টি করতে চায় তাদের উৎসাহিত করা উচিত নয়।

রূপা হকের নিজ দল ডেপুটি লেবার নেত্রী অ্যাঞ্জেলা রেনার বলেছেন, এ মন্তব্য অগ্রহণযোগ্য। তার ক্ষমা চাওয়া উচিত।

এমন পরিস্থিতিতে ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে লেবার পার্টি। একই সঙ্গে তদন্ত চলাকালে তাকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কারের ঘোষণা দেয়া হয়।

সংসদীয় দল থেকে বহিষ্কার হওয়ায় রূপা হক এখন একজন স্বতন্ত্র সদস্য হিসেবে পার্লামেন্টে বসবেন।

এদিকে, বহিষ্কারের বিষয়টি জানার পর এক টুইটে রূপা হক লিখেছেন, আমি কাওয়াসি কাওয়ারতেংয়ের কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা চেয়েছি। এছাড়া আমার ওই কথায় যারা কষ্ট পেয়েছেন আমি তাদের কাছেও ক্ষমা চাইছি। 

 

মানবকণ্ঠ/পিবি


poisha bazar