অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্টের কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ

অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্টের কাছে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ
- ছবি: প্রতিবেদক

poisha bazar

  • মানবকণ্ঠ ডেস্ক
  • ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৫:৫৩

অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার ভ্যান ডার বেলেন-এর কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেছেন সেদেশে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ আবদুল মুহিত। এ উপলক্ষে গত বুধবার রাজধানী ভিয়েনায় প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন হাফবার্গ প্যালেসে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ভিয়েনায় বাংলাদেশ মিশনের উপ-প্রধান জনাব রাহাত বিন জামান এসময় রাষ্ট্রদূতের সাথে উপস্থিত ছিলেন।

পরিচয়পত্র পেশের পর প্রেসিডেন্ট ভ্যান ডার বেলেনের সাথে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। তিনি এসময় বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রতি তার উষ্ণ শুভেচ্ছা জানান। ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিয়েনা সফরের কথাও তিনি স্মরণ করেন। বৈঠকে দুদেশের গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। প্রেসিডেন্ট ভ্যান ডার বেলেন আশা প্রকাশ করেন, অস্ট্রিয়া এবং বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আগামীতে আরো এগিয়ে যাবে।

বৈঠকে রাষ্ট্রদূত মুহিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ এবং ২০৪৪ সম্পর্কে অস্ট্রিয়ার প্রেসিডেন্টকে জানান। রাষ্ট্রদূত বলেন, ২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় পৌঁছে যাবে। এছাড়া, ২০৩০ সালের এসডিজি এসডিজি অর্জন, কোভিড-১৯ মোকাবিলায় বাংলাদেশের ভূমিকা নিয়েও আলোচনা হয়। রাষ্ট্রদূত মুহিত কোভিড-১৯ মোকাবিলায় অস্ট্রিয়া এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন উদ্যোগের সাথে যুক্ত হওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশের প্রস্তুতির কথা জানান।

বৈঠকে রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়। রাষ্ট্রদূত জানান, বাংলাদেশ ১১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে। রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের জন্য তিনি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আরো কার্যকর ভূমিকা নেয়ার আহ্বান জানান।

হাফবার্গ প্যালেসে রাষ্ট্রদূত মুহিতকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন অস্ট্রিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর একটি চৌকস দল।

মানবকণ্ঠ/আরএস





ads