হুয়াওয়ে সিএফওকে ছাড়ার পর ২ কানাডীয়কে মুক্তি দিল চীন


  • অনলাইন ডেস্ক
  • ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৪৮

কানাডায় বন্দি চীনের টেলিকম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা (সিএফও) এবং চীনে বন্দি দু’জন কানাডীয়র মুক্তির পর চীনের সঙ্গে কানাডার দীর্ঘদিনের কূটনৈতিক বিরোধের অবসান ঘটতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

২০১৮ সালে মার্কিন পরোয়ানায় গ্রেফতার হওয়া হুয়াওয়ের জ্যেষ্ঠ নির্বাহী মেং ওয়াংঝো যুক্তরাষ্ট্রের প্রসিকিউটরদের সঙ্গে একটি চুক্তির পর শুক্রবার কানাডা ত্যাগ করেছেন। এর কয়েক ঘণ্টা পর গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে একই বছরে গ্রেফতারকৃত কানাডার দুই নাগরিক মাইকেল স্প্যাভর এবং মাইকেল কোভরিগকে মুক্তি দিয়েছে চীন। মাইকেল স্প্যাভোর ব্যবসায়ী এবং মাইকেল কোভরিগ সাবেক কূটনীতিবিদ ছিলেন।

মেংয়ের গ্রেফতারের প্রতিশোধ হিসেবে কানাডীয়দের আটকের অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করেছে বেইজিং। কিন্তু সমালোচকরা চীন ওই দু’জনকে আটকের পর রাজনৈতিক দর কষাকষির মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন।

চীন থেকে মুক্তি পাওয়া ওই দুই কানাডীয় সবসময়ই নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করে আসছিলেন। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, তারা দু’জন অবিশ্বাস্য রকমের কঠিন পরীক্ষার মধ্য দিয়ে গেছেন।

তিনি বলেন, ‘এটা আমাদের সবার জন্য ভালো সংবাদ যে, তারা দু’জন এখন পরিবারের সঙ্গে মিলিত হওয়ার জন্য বাড়ির পথে আছেন। গত এক হাজার দিন ধরে তারা দৃঢ়তা, অধ্যবসায়, সহনশীলতা এবং স্বাভাবিক আচরণ প্রদর্শন করেছেন।’

কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘শনিবার স্থানীয় সময় সকালের দিকে তারা কানাডায় পৌঁছাবেন। চীনে নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত ডোমিনিক বারটন তাদের সঙ্গে আছেন।’

২০১৮ সালে দুই কানাডীয়কে গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে গ্রেপ্তার করে চীনের আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী। গত আগস্টে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে
ব্যবসায়ী স্প্যাভোরকে ১১ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন চীনের একটি আদালত। অন্যদিকে, কোভরিগের মামলায় রায় এখনও প্রকাশ করা হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অনুরোধের পর একই বছরের ১ ডিসেম্বর মেংকে গ্রেফতার করে কানাডা। মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে হুয়াওয়ে ইরানে লেনদেন করছে অভিযোগ তুলে যুক্তরাষ্ট্র তাকে গ্রেফতারে কানাডার প্রতি অনুরোধ জানিয়েছিল।

চীনের টেলিকম জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রতিষ্ঠাতা, ধনকুবের রেন ঝেংফেইয়ের মেয়ে মেং মুক্তির আগে ইরানে হুয়াওয়ের ব্যবসায়িক লেনদেন সম্পর্কে মার্কিন তদন্তকারীদের বিভ্রান্ত করা হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যর্পণের লড়াইয়ের সময় তিনি কানাডায় তিন বছর গৃহবন্দী ছিলেন।

সূত্র: বিবিসি।

মানবকণ্ঠ/আরআই


poisha bazar

ads
ads