মাঠে বসে ফুটবল ম্যাচ দেখল ইরানের নারীরা

মানবকণ্ঠ
ছবি - সংগৃহীত।

poisha bazar

  • মানবকণ্ঠ ডেস্ক
  • ১২ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৩৮

গত ৪০ বছরের মধ্যে ইরানে প্রথমবারের মতো মাঠে বসে সরাসরি ফুটবল ম্যাচ দেখল দেশটির নারীরা। ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সতর্কবার্তার পর স্টেডিয়ামে নারী প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয় ইরান। এরপর তেহরানের আজাদি স্টেডিয়ামে কম্বোডিয়ার বিপক্ষের দেশের খেলায় হাজার হাজার নারী উপস্থিত হয়। ইরানে মাঠে বসে নারীদের খেলা দেখতে না দেয়ার বিষয়ে বহুদিন ধরেই বিতর্ক ছিল।

এ বিষয়ে সম্প্রতি ফিফার তরফ থেকেও হুমকি দেয়া হয়েছিল যে, ইরান যদি খেলার মাঠে তাদের বিতর্কিত বিধিনিষেধ তুলে না নেয় তবে তারাও খেলায় অংশ নিতে পারবে না। এর আগে গত নভেম্বরের শুরুতে তেহরানে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে মাঠে খেলা দেখতে আসেন ৮০০ জন ইরানি নারী। তবে তাদের বিশেষভাবে বাছাই করা হয়েছিল এবং তাদের কাছে কোনো টিকিট বিক্রি করা হয়নি।

শুক্রবার অনেক নারীই ইরানের সবুজ, সাদা এবং লালের মিশেলে তৈরি পতাকা মাথায় এবং গলায় ঝুলিয়ে তেহরানের আজাদি স্টেডিয়ামে ২০২২ ওয়ার্ল্ড কাপের বাছাই পর্বের খেলা উপভোগ করেছেন। বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে অংশ নিয়েছিল ইরান এবং কম্বোডিয়া। অনেক নারীই গালে এবং কপালে ইরানের পতাকা একে খেলার মাঠে হাজির হয়েছিলেন।

প্রায় ৪০ বছর পর মাঠে বসে খেলা দেখার অনুমতি পেলেন ইরানি নারীরা। গত মাসেই ফিফার তরফ থেকে ইরানকে নির্দেশ দেয়া হয় যেন তারা নারীদের স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখার ওপর থেকে সব ধরনের বিধিনিষেধ তুলে নেয়। এর পরেই ইরান নারীদের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। সম্প্রতি কট্টরপন্থি দেশ সৌদিও নারীদের স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখার অনুমতি দিয়েছে।

মানবকণ্ঠ/এইচকে




Loading...
ads





Loading...